DBC News
আজও শিক্ষার্থীদের সঙ্গে সংঘর্ষ

আজও শিক্ষার্থীদের সঙ্গে সংঘর্ষ

নিরাপদ সড়কের দাবিতে আজও আন্দোলনে নামা রাজধানীর বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে পুলিশ ও হেলমেট পরা একদল যুবকের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। ইস্ট ওয়েস্ট, নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয় ও শাহবাগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে এই সংর্ঘষের ঘটনা ঘটে।

সোমবার সকাল ১১টা থেকে সড়ক পরিবহণ আইন মন্ত্রিসভায় পাশ হওয়া পর্যন্ত রামপুরা ব্রিজে অবস্থান কর্মসূচি ছিল ইস্ট ওয়েস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রদের। কিন্তু রামপুরা ব্রিজে অবস্থান নিতে গেলে, স্থানীয় কিছু যুবক লাঠি হাতে তাদের ধাওয়া দেয়।

ধাওয়া খেয়ে ক্যাম্পাসে ফিরে পাল্টা ইট পাটকেল ছুঁড়তে থাকে তারা। এক পর্যায়ে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে চাইলে পরিস্থিতি আরও উত্তপ্ত হয়। পরে একদল যুবক যোগ দেয় সংঘর্ষে।

এ সময় আইনশৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনীর সদস্যরা শিক্ষার্থীদের চলে যেতে বললে তারা না গিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকে টায়ার জ্বালিয়ে দেয়। পরে পুলিশ টিয়ার শেল ছুঁড়লে শিক্ষার্থীরা ইস্ট ওয়েস্ট ইউনিভার্সিটির ভেতরে অবস্থান নেন। বিকেল সাড়ে তিনটা পর্যন্ত থেমে থেমে চলে এ সংঘর্ষ। বিকেল সাড়ে চারটার পর শিক্ষকদের উপস্থিতিতে শিক্ষার্থীরা ক্যাম্পাস ছেড়ে যায়।

এদিকে বিকেলে, শাহবাগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা নৌমন্ত্রীর পদত্যাগের দাবিতে মিছিল করে। মিছিলটি শাহবাগে এলে পুলিশ জলকামান ব্যবহার এবং টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে ছত্রভঙ্গ করে দেয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শিক্ষার্থীদের একটি মিছিল শাহবাগের দিকে এলে মিছিলটি পুলিশের বাধার মুধে পড়ে। পরে মিছিলটি লক্ষ্য করে পুলিশ জলকামান ব্যবহার করে এবং টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে। সকাল থেকেই পুলিশ শাহবাগ এলাকায় অবস্থান নিয়ে ছিলো জানিয়ে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বেলা একটার দিকে মিছিলটি বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মসজিদ পর্যন্ত এলে সতর্ক অবস্থান নেয় পুলিশ। এরপর বিকেল তিনটার দিকে শাহবাগে এলে পুলিশের বাধার মুখে পড়ে মিছিলটি। পরে জলকামান ও টিয়ারশেলের নিক্ষেপের কারণে পিছু হটতে বাধ্য হয় আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের মিছিলটি।

ইস্ট ওয়েস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ে সংঘর্ষের খবরে নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়েও পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ জড়িয়ে পড়ে শিক্ষার্থীরা।