DBC News
গ্রেনেড হামলা: নীলনকশার অনুমোদন মেলে হাওয়া ভবনে

গ্রেনেড হামলা: নীলনকশার অনুমোদন মেলে হাওয়া ভবনে

পঁচাত্তর পরবর্তী সময়ে ঘৃণ্যতম রাজনৈতিক হত্যাকাণ্ড ঘটে দু'হাজার চারের একুশে আগস্ট। আওয়ামী লীগকে নিশ্চিহ্ন করতে শেখ হাসিনাসহ শীর্ষ নেতাদের হত্যার অনুমোদন দেয় হাওয়া ভবন। জঙ্গি সংগঠন হরকাতুল জিহাদকে দিয়ে হত্যার নীলনকশা বাস্তবায়নে জড়িত বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের মন্ত্রী, নেতা, গোয়েন্দা সংস্থার কর্মকর্তারা। মামলার নথিপত্র ঘেটে বের হওয়া ২১শে আগস্ট গ্রেনেড হামলার বিভিন্ন ধাপ নিয়েই এই প্রতিবেদন ।

আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনাকে হত্যার পরিকল্পনা বেশ পুরনো। মিশন সফল করতে শোকাবহ আগস্টকে বেছে নেয় খুনীচক্র। চৌদ্দই আগস্ট হাওয়া ভবনে বৈঠকে মিলিত হন তারেক রহমান, স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবর, শিক্ষা উপমন্ত্রী আবদুস সালাম পিন্টু, প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক সচিব হারিছ চৌধুরী, মন্ত্রী ও জামায়াত নেতা আলী আহসান মোহাম্মদ মুজাহিদ, জঙ্গি সংগঠন হরকাতুল জিহাদ বা হুজি নেতা মুফতি হান্নান, এনএসআই মহাপরিচালক আব্দুর রহিম, ডিজিএফআই পরিচালক রেজ্জাকুল হায়দার চৌধুরীসহ কয়েকজন। এই বৈঠকেই শেখ হাসিনাকে হত্যার সিদ্ধান্ত হয়।

পরদিন পনেরোই আগস্ট শোক দিবসের দিনে আবারও হাওয়া ভবনে বৈঠকে বসে ষড়যন্ত্রকারীরা। একুশে আগস্ট আওয়ামী লাগের সন্ত্রাসবিরোধী সমাবেশে হামলার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। অস্ত্র হিসেবে গ্রেনেড ব্যবহারের পরামর্শ দেন স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বাবর। হামলা বাস্তবায়নের দায়িত্বপ্রাপ্ত হুজি নেতাদের উদ্দেশে তারেক রহমান বলেন, সব ধরনের প্রশাসনিক সহযোগিতা দেয়া হবে।

দুদিন পর আঠারোই আগস্ট মোহাম্মদপুরে বৈঠকে বসেন তিন জঙ্গি আবু তাহের, মুফতি হান্নান ও আহসান উল্লাহ কাজল। এই বৈঠকের পরই ধানমন্ডিতে উপমন্ত্রী পিন্টুর সরকারি বাসভবনে যান তিন জঙ্গি। সেখানে পিন্টু ও তার ভাই হুজি নেতা মাওলানা তাজউদ্দিনের সঙ্গে হামলার পরিকল্পনা নিয়ে আরেক দফা আলোচনা করেন তারা।

পরদিন ঊনিশে আগস্ট মিরপুরে একটি মসজিদে আবারও বৈঠকে মিলিত হন পিন্টু, তাহের ও কাজল। সঙ্গে যোগ দেন আরেক জঙ্গি আবু জান্দাল।

২০শে আগস্ট পিন্টুর সরকারি বাসভবনে যান জান্দাল ও কাজল। দুই জঙ্গিকে পনেরোটি গ্রেনেড বুঝিয়ে দেন উপমন্ত্রীর ভাই মাওলানা তাজউদ্দিন। পাকিস্তান সেনাবাহিনীর এসব আর্জেস গ্রেনেড সরবরাহ করে কাশ্মীরভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন হিজবুল মুজাহিদীনের নেতা আবদুল মাজেদ বাট।

একুশে আগস্ট সকালে বাড্ডায় হামলার জন্য নির্বাচিত বারো জঙ্গির সঙ্গে বৈঠক করে হামলার দিক-নির্দেশনা দেন মুফতি হান্নান। তারপর প্রতি দলে চারজন করে হামলাকারীদের তিন ভাগে ভাগ করা হয়। তাদেরকে বুঝিয়ে দেয়া হয় পনেরোটি গ্রেনেড। এরমধ্যে মঞ্চ আক্রমণের দায়িত্ব পায় একটি দল। বাকি দুটি দলের টার্গেট ছিলো জনতার ওপর হামলা চালানো।

দুপুরে মুফতি হান্নানের আস্তানা থেকে বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ের দিকে রওনা হয় আক্রমণকারীরা। আওয়ামী লীগের মিছিলের সঙ্গে মিশে গিয়ে সমাবেশস্থলে হাজির হন ১২ জঙ্গি। তিন দিকে অবস্থান নেন তারা।

বিকেল পাঁচটা বাইশ মিনিটে একের পর এক গ্রেনেড আক্রমণে কেঁপে ওঠে বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউ। মানব ঢাল তৈরি করে কোনো রকমে শেখ হাসিনাকে রক্ষা করেন আওয়ামী লীগ নেতারা। নিহত হন চব্বিশ জন।

ওই হামলায় নিহতরা হলেন-  আওয়ামী লীগ নেত্রী আইভি রহমান, শেখ হাসিনার দেহরক্ষী ল্যান্স করপোরাল (অব) মাহবুবুর রহমান, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেত্রী হাসিনা মমতাজ, রিজিয়া বেগম, রফিকুল ইসলাম  (আদা চাচা হিসেবে পরিচিত), রতন শিকদার, মোহাম্মদ হানিফ ওরফে মুক্তিযোদ্ধা হানিফ, মোশতাক আহমেদ (সাবেক ছাত্রলীগ নেতা), লিটন মুনশি, আবদুল কুদ্দুছ পাটোয়ারী, বিল্লাল হোসেন, আব্বাছ উদ্দিন শিকদার, আতিক সরকার, মামুন মৃধা, নাসিরউদ্দিন, আবুল কাসেম, আবুল কালাম আজাদ, আবদুর রহিম, আমিনুল ইসলাম, জাহেদ আলী, মোতালেব ও সুফিয়া বেগম। 

আরও পড়ুন

ব্যারিস্টার মঈনুলকে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান

সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টিকে 'চরিত্রহীন' বলায় ব্যারিস্টার মঈনুল হোসেনেকে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন আরও ১৪ জন বিশিষ্ট নাগরিক। শুক...

১৭৭ রোহিঙ্গা পুনর্বাসিত, দাবি মিয়ানমারের

১৭৭ রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের যে দাবি করেছে মিয়ানমার, সে বিষয়ে বাংলাদেশকে কিছুই জানানো হয়নি। এমনটি জানিয়েছেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম। শুক্রবার টেলিফোনে...

'সাত দফা দাবির একটিও গ্রহণযোগ্য নয়'

'বিএনপি দুর্দশাগ্রস্থ দল। একে উদ্ধারের দায়িত্ব নিয়েছেন ডক্টর কামাল হোসেন'- শুক্রবার রাজধানীতে এক অনুষ্ঠানে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ এ কথা বলেন। এসময় তিনি আর...

'চমক নিয়ে আসছে জাতীয় পার্টি'

জোট-মহাজোটের ভাঙা-গড়ার মধ্যে নতুন চমক নিয়ে আসছে জাতীয় পার্টির নেতৃত্বাধীন জাতীয় সম্মিলিত জোটে। এমনটাই বললেন পার্টির মহাসচিব রুহুল আমিন হাওলাদার। আগামীকালের মহাস...

রাজধানীতে চলছে রমরমা মাদক ব্যবসা

জোরেশোরে মাদক বিরোধী অভিযান চললেও, রাজধানীর চিহ্নিত কয়েকটি স্পটে বন্ধ হয়নি মাদক ব্যবসা। একইসঙ্গে দিনে দুপুরে চলছে মাদক সেবন। এই পরিস্থিতির কথা স্বীকার করে, পুলি...

দু'ঘন্টার জিজ্ঞাসায় অভিযোগ অস্বীকার করলেন লতিফুর

সরকারি জমি দখলসহ বিভিন্ন অভিযোগে ট্রান্সকম গ্রুপের চেয়ারম্যান লতিফুর রহমানকে দুই ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন- দুদক। আজ সকালে, সেগুনবাগিচায় দুদকের...