DBC News
ব্যারিস্টার মঈনুলকে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান

ব্যারিস্টার মঈনুলকে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান

সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টিকে 'চরিত্রহীন' বলায় ব্যারিস্টার মঈনুল হোসেনেকে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন আরও ১৪ জন বিশিষ্ট নাগরিক। শুক্রবার বিকেলে মুক্তিযোদ্ধা, নাটক ও চলচ্চিত্র পরিচালক নাসির উদ্দীন ইউসুফ তাদের পক্ষে এ বিবৃতি গণমাধ্যমে পাঠান। 

বিবৃতিতে স্বাক্ষর করেছেনঃ ১. আনিসুজ্জামান ২. হাসান আজিজুল হক ৩. অনুপম সেন ৪. রামেন্দু মজুমদার ৫. আতাউর আমান ৬. ফেরদৌসী মজুমদার ৭. আলী জাকের ৮. মামুনুর রশীদ ৯. নাসির উদ্দীন ইউসুফ ১০. তারিক আলী ১১. সারা জাকের ১২. শিমূল ইউসুফ ১৩. কবি মুহাম্মদ সামাদ ১৪. হাসান আরিফ।  

ব্যারিস্টার মঈনুলের এ ধরনের অশোভন মন্তব্যের তীব্র নিন্দা জানিয়ে বিবৃতিদাতারা বলেন, 'সাংবাদিক, কলামিস্ট ও দৈনিক আমাদের নতুন সময়ের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মাসুদা ভাট্টি একাত্তর টেলিভিশনে ব্যারিস্টার মঈনুল হোসেনকে একটি প্রশ্ন করার প্রেক্ষিতে তিনি মাসুদা ভাট্টিকে চরিত্রহীন বলে গালি দেয়ায় আমরা এর তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। আমরা মনে করি যে, কেবলমাত্র সাংবাদিকসুলভ প্রশ্ন করায় কাউকে এরকম ক্ষিপ্ত হয়ে চরিত্রহীন বলার এখতিয়ার কারও নেই। স্বাধীন সাংবাদিকতা ও উম্মুক্ত গণমাধ্যম যখন বিভিন্নভাবে আক্রান্ত তখন রাজনীতিবিদ ও আইনবিদ হিসেবে ব্যারিস্টার মঈনুলের কাছ থেকে এরকম আচরণ অনভিপ্রেত। দেশের ক্ষুব্ধ নারী সমাজের সঙ্গে একাত্মতা ঘোষণা করে আমরা নিম্নোক্ত ব্যক্তিবর্গও ব্যারিস্টার মঈনুল হোসেনের এই নিন্দনীয় আচরণে অত্যন্ত ক্ষুব্ধ। আমরাও অবিলম্বে ব্যারিস্টার মঈনুলের এই অনভিপ্রেত বক্তব্য প্রত্যাহারপূর্বক প্রকাশ্যে মার্জনা প্রার্থনা আশা করছি। এটা শুধু মাসুদা ভাট্টিকে অপমান করা হয়েছে বলে নয়, বরং ভবিষ্যতে যাতে কেউ আর এভাবে কাউকে ব্যক্তি আক্রমণ না করেন সেটা নিশ্চিত করার জন্যই অবিলম্বে তার কাছ থেকে প্রকাশ্যে একটি মার্জনা প্রার্থনা আসা প্রয়োজন বলে আমরা মনে করি। দেশের চলমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি এবং ভবিষ্যতে একটি সুন্দর বাংলাদেশ সৃষ্টির লক্ষ্যে সমাজের প্রতিটি স্তরে সহনশীলতা ও গণতান্ত্রিক আচরণ প্রতিষ্ঠাই আমাদের সকল নাগরিকের লক্ষ্য।'

গত ১৬ই অক্টোবর মধ্যরাতে একাত্তর টেলিভিশনের নিয়মিত আয়োজন 'একাত্তর জার্নালে' রাজনৈতিক সংবাদের বিশ্লেষণ চলছিল। অনুষ্ঠান পরিচালনায় ছিলেন মিথিলা ফারজানা। অতিথি হিসেবে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টি এবং সাখাওয়াত হোসেন সায়ন্ত। আলোচনায় স্টুডিওর বাইরে থেকে যুক্ত হন ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন। আলোচনা চলার সময়ে, ব্যারিস্টার মইনুলকে মাসুদা ভাট্টি প্রশ্ন করেন, 'সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি আলোচনা চলছে যে, ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন- আপনি ঐক্যফ্রন্টে জামায়াতের প্রতিনিধিত্ব করছেন।' এর জবাবে ব্যারিস্টার মইনুল বলেন, "আপনার দুঃসাহসের জন্য আপনাকে ধন্যবাদ দিচ্ছি। আপনি 'চরিত্রহীন' বলে আমি মনে করতে চাই।'

 

আরও পড়ুন

মওলানা ভাসানীর মৃত্যুবার্ষিকীতে ঐক্যফ্রন্টের শ্রদ্ধা

মওলানা আব্দুল হামিদ খান ভাসানীর ৪২তম মৃত্যুবার্ষিকীতে টাঙ্গাইলের সন্তোষে তাঁর সমাধিতে জিয়ারত ও শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতারা।শনিবার সকাল ১০টায়...

'ভালো প্রার্থী পেলে আওয়ামী লীগের প্রার্থীকে বাদ দেয়া হবে'

জোটে ভালো প্রার্থী পেলে আওয়ামী লীগের প্রার্থীকেও বাদ দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিহবণ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। শনিবার সকালে, র...

হার দিয়েই নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ শুরু বাংলাদেশের

আইসিসি নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে শুরুটা ভালো হলো না বাংলাদেশের। নিজেদের প্রথম ম্যাচে স্বাগতিক উইন্ডিজের কাছে ৬০ রানের বড় ব্যবধানে হেরে গেছে সালমারা। স্বাগতিকদে...

বাল্যবিয়ে বন্ধে কাজ করছে স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীরা

বাল্যবিয়ে রোধে বগুড়ায় কাজ করছেন শত শত স্কুল ও কলেজ পড়ুয়া শিক্ষার্থী। গ্রামে গ্রামে ঘুরে তারা সচেতন করে তুলছেন অভিভাবকদের। ক্যাম্পেইন, সমাবেশ ও উঠান বৈঠকের মাধ্য...