DBC News
স্যাটেলাইটের মালিকানা বুঝে পেলো বাংলাদেশ

স্যাটেলাইটের মালিকানা বুঝে পেলো বাংলাদেশ

বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইটের মালিকানা সম্পূর্ণভাবে বুঝে পেলো বাংলাদেশ। শুক্রবার রাজধানীর বাংলামোটরে, বাংলাদেশ কমিউনিকেশন স্যাটেলাইট কোম্পানি লিমিটেড (বিসিএসসিএল) কার্যালয়ে 'বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট হস্তান্তর' শীর্ষক এক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে মালিকানা বুঝিয়ে দেয়া হয়।

'ট্রান্সফার অফ টাইটেল' হস্তান্তরের মাধ্যমে ফ্রান্সের স্যাটেলাইট নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান থ্যালাস অ্যালানিয়া'র কাছ থেকে বাংলাদেশের প্রথম বাণিজ্যিক উপগ্রহ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ এর মালিকানা বুঝে পেলো বাংলাদেশ। বাংলাদেশের পক্ষে দায়িত্ব বুঝে নেয় বাংলাদেশ কমিউনিকেশন স্যাটেলাইট কোম্পানি লিমিটেড (বিসিএসসিএল)।

বিটিআরসি'র ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জহুরুল হকের কাছে মালিকানা হস্তান্তর করেন থ্যালাস অ্যালানিয়া'র প্রোগ্রাম ম্যানেজার জিল অবাদিয়া। পরবর্তীতে বিটিআরসি'র ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তা হস্তান্তর করেন বিসিএসসিএল এর চেয়ারম্যানের শাহজাহান মাহমুদের কাছে।

মালিকানা বুঝে পেয়ে বাংলাদেশ কমিউনিকেশন স্যাটেলাইট কোম্পানি লিমিটেড-বিসিএসসিএল জানিয়েছে, শিগগিরই বাণিজ্যিক কার্যক্রম শুরু হবে এই স্যাটেলাইটের।

এর আগে, দক্ষিণ এশিয়ার শীর্ষ ফুটবল প্রতিযোগিতা সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ এর মাধ্যমে বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইট এর পরীক্ষামূলক সম্প্রচার করা হয়। এই আয়োজনের ম্যাচগুলো সরাসরি সম্প্রচার করা হয় বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট এর মাধ্যমে। আর এর মধ্যে দিয়েই দৃশ্যমান হয় মহাকাশে পাঠানো বাংলাদেশের প্রথম উপগ্রহের কার্যক্রম ও সক্ষমতা।

এ বিষয়ে সে সময় বাংলাদেশ কমিউনিকেশন স্যাটেলাইট কোম্পানির চেয়ারম্যান ড. শাহজাহান মাহমুদ জানান, 'টেলিভিশন স্টেশনগুলো থেকে আমরা যে মতামত বা ফিডব্যক পেয়েছি তাতে তারা প্রশংসা করে বলেছেন এর মান চমৎকার।' আর বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের টেস্ট সিগন্যাল পরীক্ষা করে প্রাথমিক সন্তুষ্টির কথা জানায় বাংলাদেশ ব্রডকাস্টার্স এ্যাসোসিয়েশন।

যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় সময় গেলো ১১ই মে বিকেল ৪টায় ফ্লোরিডার কেনেডি স্পেস সেন্টার থেকে বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইট উৎক্ষেপিত হয়। স্যাটেলাইটটিকে নিরক্ষ রেখার ১১৯ দশমিক ১ ডিগ্রিতে স্থাপন করা হয়। স্যাটেলাইটটি সেখানে সেট হওয়ার পরে টেস্ট সিগন্যাল পাঠাতে শুরু করে। পরবর্তী সময়ে ইন অরবিট টেস্টসহ সব ধরনের পরীক্ষা নিরীক্ষার পরে স্যাটেলাইটটিকে ট্রান্সমিশনের জন্য প্রস্তুত করা হয়।

স্যাটেলাইটটির ওজন তিন দশমিক সাত মেট্রিক টন। এটি মহাকাশে অবস্থান করবে ১৫ বছর। সর্বমোট খরচ ধরা হয়েছিল ২ হাজার ৯৬৭ কোটি টাকা। কিন্তু শেষ পর্যন্ত প্রকল্পটি বাস্তবায়নে খরচ হয়েছে ২ হাজার ৭৬৫ কোটি টাকা। মোট খরচে সরকারি অর্থ ১ হাজার ৩১৫ কোটি ৫১ লাখ টাকা এবং বিদেশি অর্থায়ন থাকবে ১ হাজার ৬৫২ কোটি ৪৪ লাখ টাকা। বাংলাদেশকে এই ঋণ দিয়েছে বহুজাতিক ব্যাংক এইচএসবিসি। আগামী সাত বছরের মধ্যে এই খরচ উঠবে আসবে বলে ধারণা করছে উৎক্ষেপণকারী সংস্থা বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)।

স্যাটেলাইট তৈরির পুরো কাজটি বাস্তবায়িত হয়েছে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) তত্ত্বাবধানে। তিনটি ধাপে এই কাজ হয়েছে। এগুলো হলো- স্যাটেলাইটের মূল কাঠামো তৈরি, স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ ও ভূমি থেকে নিয়ন্ত্রণের জন্য গ্রাউন্ড স্টেশন তৈরি। বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইটের মূল অবকাঠামো তৈরি করেছে ফ্রান্সের মহাকাশ সংস্থা থ্যালেস অ্যালেনিয়া স্পেস।

স্যাটেলাইট তৈরির কাজ শেষে গত ৩০শে মার্চ এটি উৎক্ষেপণের জন্য যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডায় পাঠানো হয়। যুক্তরাষ্ট্রের বেসরকারি মহাকাশ অনুসন্ধান ও প্রযুক্তি কোম্পানি ‘স্পেসএক্স’ এর ফ্যালকন-৯ রকেট ফ্লোরিডার কেইপ কেনাভেরালের লঞ্চিং প্যাড থেকে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটকে নিয়ে মহাকাশের পথে উড়াল দেয়।

স্যাটেলাইট তৈরি এবং ওড়ানোর কাজটি বিদেশে হলেও এটি নিয়ন্ত্রণ করা হচ্ছে বাংলাদেশ থেকেই। এ জন্য গাজীপুরের জয়দেবপুরে তৈরি গ্রাউন্ড কন্ট্রোল স্টেশন স্যাটেলাইট নিয়ন্ত্রণের মূল কেন্দ্র হিসেবে কাজ করছে। আর বিকল্প হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছে রাঙামাটির বেতবুনিয়া গ্রাউন্ড স্টেশন।

আরও পড়ুন

জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের জাতীয় কাউন্সিলের ভোটগ্রহণ সম্পন্ন

অবশেষে নান জল্পনা কল্পনা শেষে জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের ৬ষ্ঠ জাতীয় কাউন্সিলের সভাপতি-সম্পাদক পদে ভোটগ্রহণ শেষ হল। বুধবার রাত ৮টা ৪০মিনিটে, বিএনপির স্থায়ী...

তিনটি ক্লাবে অভিযান ১৮৫ জন আটক ও প্রায় ৪০ লাখ টাকা উদ্ধার

রাজধানীর ক্লাবে ক্লাবে চলে ক্যাসিনো ব্যবসা। সন্ধ্যার পর থেকেই শুরু হয় জুয়ার আসর। বুধবার হঠাৎ করেই এসব ক্লাবে অভিযানে নামে র‌্যাব। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ফকি...

ডিজিটাল দুর্নীতি নিয়ন্ত্রণ বড় চ্যালেঞ্জ: দুদক চেয়ারম্যান

মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে অবৈধ লেনদেন হচ্ছে কিনা, তা দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) খতিয়ে দেখছে বলে জানিয়েছেন সংস্থাটির চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ। তিনি বলেন, ‘এ...

'আলোচনা করেই গ্রামীণ ফোন-রবির পাওনা আদায় করা হবে'

আলোচনার মাধ্যমেই গ্রামীণ ফোন ও রবির কাছ থেকে পাওনা আদায় করবে সরকার। তবে গ্রামীণ ফোনকে এ বিষয়ক মামলা প্রত্যাহার করতে হবে বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস...

ডিজিটাল সেবা চালু করছে কোটস

বিশ্বের শীর্ষ স্থানীয় সুতা উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান কোটস গ্রাহকদের সুবিধার্থে ডিজিটাল সেবা চালু করছে। এতে প্রতিষ্ঠানটি সমন্বিত প্রযুক্তির মাধ্যমে নতুন একটি ব্র্যান...

কেমোথেরাপিতে এখন হারাতে হবে না চুল

ক্যান্সারের চিকিৎসায় কেমোথেরাপি থেকে চুল পড়া রোধ করা সম্ভব বলে সম্প্রতি একটি গবেষণায় প্রমানিত হয়েছে। ইএমবিও মলেকুলার মেডিসিন জার্নালে প্রকাশিত একটি গবেষণাপত্রে...