DBC News
স্থবির আখাউড়া স্থলবন্দর

স্থবির আখাউড়া স্থলবন্দর

আমদানি রপ্তানি কমে গেছে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া স্থলবন্দরে। একসময় শ্রমিক আর পণ্যবাহী ট্রাকের কোলাহল থাকলেও, এখন প্রায় স্থবির হয়ে পড়েছে বন্দরটি।

২০১০ সালে পূর্ণাঙ্গ বন্দর হিসেবে কার্যক্রম শুরু করে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া স্থলবন্দর। এই বন্দর দিয়ে ৩২টি পণ্য ভারতের ৭টি রাজ্যে রপ্তানি হতো। প্রতিদিনই শত শত ট্রাকে ভারতে যেতো তুলা, পাথর, সিমেন্ট, মাছসহ নানা পণ্য। আর ভারত থেকে আসতো হাতে গোনা কিছু পণ্য।

কিন্তু কয়েক বছর ধরে পণ্য রপ্তানি কমতে শুরু করেছে। যেখানে প্রতিদিন অন্তত দেড় থেকে দুইশ ট্রাক পণ্য রপ্তানি হতো ভারতে, এখন সেখানে তা ২৫ থেকে ৩০টি ট্রাকে নেমে এসেছে।

স্থানীয় ব্যবসায়ীরা জানান, 'অতীতে যেখানে প্রতিদিন ২'শ থেকে ৩'শ গাড়ি এ বন্দর দিয়ে যাতায়াত করতো আজ তা শ্যূণের কোটায় এসে দাঁড়িয়েছে। যে কয়েকটি পণ্য এ দিক দিয়ে আমদানি করার অনুমতি দিয়েছে সরকার, সেগুলোর এখানে কোন চাহিদা নেই।' 

এই অবস্থা থেকে উত্তোরনের জন্য বন্দরের ব্যবসায়ীরা সরকারের কাছে ভারত থেকে ৩০টি পণ্য আমদানি করার জন্য অনুমতি চেয়েছিল। বিপরীতে এমন ৫টি পণ্য আমদানির অনুমতি দেয়া হয়েছে, যেসব পণ্যের তেমন কোন চাহিদা নেই।

আখাউড়া স্থল বন্দর আমদানি রপ্তানি সমিতির সভাপতি আবদুল ওয়াহাব বলেন, 'আগরতলা রাজধানীর সাথে বিনা বাধায় আমাদের পণ্য রপ্তানী করার সুযোগ করে দিচ্ছেনা সরকার। আমাদের একমাত্র চাওয়া আমদানী রপ্তানী করার সুযোগ দেয়া হোক।'

আমদানি-রপ্তানি কমে যাওয়ায় রাজস্ব আদায়ও কমে গেছে। আখাউড়া স্থল বন্দরের রাজস্ব কর্মকর্তা শ্যামল কুমার বিশ্বাস জানান, 'আখাউড়া বন্দর দিয়ে যদি আগের মত পণ্য আমদানী রপ্তানী করা হয় তবে এ বন্দর সচল রাখা সম্ভব হবে। আগের তুলনায় এ বন্দরের রাজস্বের পরিমানও অনেক কমে গেছে।'

এমন অবস্থায় আখাউড়া স্থলবন্দর সচল রাখতে আরো পণ্য আমদানির অনুমতি দেয়ার কোন বিকল্প নেই বলেও মনে করেন বন্দরের ব্যবসায়ীরা এবং কর্তৃপক্ষ।

আরও পড়ুন

চট্টগ্রাম বন্দরে আমদানি পণ্যে বেআইনি ফি নেয়ার অভিযোগ

চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে বেআইনিভাবে ফি আদায়ের অভিযোগ করেছেন আমদানিকারকরা। তাদের অভিযোগ, এলসির শর্ত অনুযায়ী, আমদানি করা পণ্য সর্বশেষ গন্তব্য কমলাপুর...

রাজস্বের লক্ষ্য পূরণ হচ্ছে না চট্টগ্রাম কাস্টমসে

চলতি অর্থবছরে রাজস্ব আয়ে লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে প্রায় ১৫ হাজার ৪৬২ কোটি টাকা পিছিয়ে রয়েছে চট্টগ্রাম কাস্টমস। পণ্য আমদানি কমে যাওয়া, বন্ড সুবিধার অপব্যবহার, আন্ডার ই...

ভুল চিকিৎসায় প্রসূতির মৃত্যু; পরিচালক ও ডাক্তার গ্রেপ্তার

ভুল চিকিৎসায় এক প্রসূতির মৃত্যুর ঘটনায় চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুরের একটি বেসরকারি ক্লিনিকের পরিচালক ও ডাক্তারকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। সকালে গোমস্তপুর থানার পি...

গৃহবধূর সহায়তায় ৫ম শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষণ

আশুলিয়ায় প্রতিবেশী এক গৃহবধূর সহায়তায় ধর্ষণের শিকার হয়েছে ৫ম শ্রেণীর স্কুল ছাত্রী। এ ঘটনায় অভিযুক্ত গৃহবধূ রাবেয়া বেগমকে আটক করলেও ধর্ষক পলাতক রয়েছে।বুধবার দুপু...