DBC News
'স্বাধীনতার সুফল দিতে কাজ করছে সরকার'

'স্বাধীনতার সুফল দিতে কাজ করছে সরকার'

স্বাধীনতার সুফল জনগণের কাছে পৌঁছে দিতে আওয়ামী লীগ সরকার কাজ করছে বলে জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর শাহবাগে বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস প্রশাসন একাডেমির আইন ও প্রশাসন কোর্সের সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতাকালে তিনি এ কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, 'বর্তমান সরকার দেশে দারিদ্র্যের হার ২১ শতাংশে নামিয়ে এনেছে। ২০০৯ সালে ৩২০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন দিয়ে সরকারের কার্যক্রম শুরু করেছিল । এখন ২০ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদনের সক্ষমতা অর্জন করেছে বাংলাদেশ। রাস্তা-ঘাটসহ অবকাঠামোগত উন্নয়নে সরকার ব্যাপক কাজ করেছে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সরকার জনগণের জীবনমানের উন্নয়নের জন্য কাজ করছে। যে কাজগুলো করা হয়েছে, যেন সেসব উন্নয়নকাজের ধারাবাহিকতা থাকে। এসময় দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ হয়ে দেশের মানুষকে ভালোবেসে দেশের জন্য কাজ করআর আহ্বান জানান তিনি।'

‘আমরা আওয়ামী লীগ যখন সরকার গঠন করি, তখন আমাদের একটাই লক্ষ্য ছিল যে বাংলাদেশকে আমরা গড়ে তুলবো উন্নত সমৃদ্ধ দেশ হিসেবে। আর সরকার জনগণের সেবক এ ঘোষণা আমি দিয়েছিলাম যে জনগণের দোরগড়ায় আমরা স্বাধীনতার সুফল পৌঁছে দেবো। আর সেই লক্ষ্য নিয়েই আমরা পরিকল্পনা নেই। এক দিকে যেমন খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন করা, অপর দিকে স্বাক্ষরতার হার বৃদ্ধি করা। ৪৫ ভাগ থেকে ৬৫ দশমিক ৫ ভাগে উন্নিত করেছিলাম। বিদ্যুৎ ১৬০০ মেগাওয়াট ছিল ৪৩০০ মেগাওয়াটে উন্নিত করেছিলাম। এভাবে রাস্তাঘাট, পুল-ব্রীজ ব্যপকভাবে উন্নয়নের কর্মকাণ্ড আমরা শুরু করি।’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘বাংলাদেশের ইতিহাসে কেবল ২০০১ সালেই সুন্দরভাবে ক্ষমতা হস্তান্তর করেছিল আওয়ামী লীগ। ২০১৪ সালে নির্বাচনে ঠেকাতে জ্বালাও-পোড়াও এবং অগ্নিসন্ত্রাসে প্রায় ৩৯০০ জন আহত ও ৫০০ জন মারা যায়। আমরা চাইনা এমন ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটুক। তবু এসব প্রতিকূলতাকে জয় করে আমরা সরকার গঠন করেছি বলে দেশের মানুষের কাছে আজ উন্নয়ন দৃশ্যমান।‘

তিনি বলেন, 'জনগণ যাকে খুশি তাকে ভোট দিবে। গণতন্ত্র থাকলেই দেশ বেশি উন্নত হবে। এ সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিগত পাঁচ বছরের উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডের কথা তুলে ধরেন।' 

আগামী সরকারের সে সব উন্নয়নমূলক কাজের ধারাবাহিকতা যেন থাকে, সেদিকে দৃষ্টিপাত করেন, প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, 'এখন আমরা ২০ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদনের সক্ষমতা অর্জন করেছি। দেশের ৯৩ শতাংশ মানুষ বিদ্যুৎ পাচ্ছে। আমরা যে লক্ষ্য নিয়ে কাজ করছি, প্রতি ঘরে ঘরে বিদ্যুতের আলো জ্বালাবো।'

২০২১, ২০৪১, ২০৭১ ও ২১০০ সাল টার্গেট করে সরকারের কার্যক্রমের কথা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, 'আমার বয়স এখন ৭২ বছর। ২০৪১ সাল পর্যন্ত তো বাঁচবো না।' 

দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ হয়ে দেশের মানুষকে ভালোবেসে দেশের জন্য কাজ করতে তিনি সবার প্রতি আহ্ববান জানান।

আরও পড়ুন

বারভিডা কার্যালয়ে বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি না থাকায় ক্ষোভ

বাংলাদেশ রিকন্ডিশন্ড ভেহিক্যালস ইমপোর্টার্স অ্যান্ড ডিলারস অ্যাসোসিয়েশন-বারভিডা'র কার্যালয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি না থাকায়...

প্রশ্নপত্রে পর্নো তারকার নাম: খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেয়া হবে

রাজধানীর রাককৃষ্ণ মিশন উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির বাংলা প্রথম পত্রের বহু নির্বাচনি প্রশ্নপত্রে (এমসিকিউ) দু'টি প্রশ্নের সম্ভাব্য উত্তরে দুই পর্নো তারকার নাম এস...

'আওয়ামী লীগের জনপ্রিয়তা বেড়েছে'

টানা ক্ষমতায় থেকে উন্নয়ন করার কারণেই আওয়ামী লীগের জনপ্রিয়তা বেড়েছে বলে মন্তব্য করেছেন দলটির সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ শুক্রবার, রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ...

'বিএনপি সংসদে যাবে না'

বিএনপি সংসদে যাবে না, দলের নীতিনির্ধারণী ফোরামে সিদ্ধান্ত হয়েছে বলে জানিয়েছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ। শুক্রবার দুপুরে, সুপ্রিম কোর্ট...