DBC News
হারকিউলিস নিয়ে রহস্যে পুলিশও

হারকিউলিস নিয়ে রহস্যে পুলিশও

ধর্ষকের মৃতদেহ উদ্ধার আর সঙ্গে থাকা চিরকুট নিয়ে আলোচনা শুরু হয়েছে খোদ পুলিশের মধ্যে। বিশেষ করে চিরকুটে থাকা হারকিউলিস নামের রহস্য উদঘাটনে কাজ করছে পুলিশ সদরদপ্তর। মানবাধিকার কর্মী ও নারী নেত্রীরা বলছেন, আইনের শাসন দিয়েই ধর্ষণের ঘটনা মোকাবিলা করতে হবে, বিচার বহির্ভূত হত্যাকাণ্ড কোনো সমাধান হতে পারে না।

ঝালকাঠির কাঠালিয়া থেকে গত ২৬শে জানুয়ারি সজল জোমাদ্দর নামের এক যুবকের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। তার শরীরে বাধা চিরকুটে লেখা, ‘আমার নাম সজল। আমি ধর্ষক। ইহাই আমার পরিণতি।’

এরপর গত ১লা ফেব্রুয়ারি একই জেলার রাজাপুর থেকে রাকিব নামের আরেক যুবকের মরদেহ পাওয়া যায়। তার শরীরে থাকা চিরকুটে লেখা, ‘আমি রাকিব, আমি ভাণ্ডারিয়ার মাদ্রাসা ছাত্রীর ধর্ষক। ইহাই একজন ধর্ষকের পরিণতি। ধর্ষকরা সাবধান...হারকিউলিস।’

তারও আগে গত ১৯শে জানুয়ারি সাভারের খাগান এলাকার একটি মাঠ থেকে রিপন নামের আরেক যুবকের মরদেহ। তার সঙ্গে পাওয়া চিরকুটে রেখা ছিল 'আমি ধর্ষণ মামলার মূল হোতা'।

ঝালকাঠিতে নিহত দুইজনের স্বজনদের দাবি, এমন হত্যাকাণ্ড নয়, আইনের মাধ্যমেই শাস্তি দোষী হলে শাস্তির। নিহত রাকিবের পিতা আবুল কামাল মোল্লা বলেন, 'সে যদি দোষী সাব্যস্ত হয়। আইনে যা হয় আমি মেনে নেব। আইন বর্হিভুত হত্যাকান্ড মেনে নিতে পারছি না। মেনে নেয়ার মতো না।' নিহত সজলের পিতা মো: শাহ আলম জোমাদ্দার বলেন, 'আমার ছেলে হত্যার সঠিক বিচার চাই।'

মরদেহের সঙ্গে চিরকুট এবং তাতে থাকা হারকিউলিস নামটি আলোচনার জন্ম দিয়েছে খোদ পুলিশের মধ্যেও। ঝালকাঠি অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (রাজাপুর সার্কেল) মো: মোজাম্মেল হোসেন বলেন, 'এ রহস্য উদঘাটনে আমরা তৎপর। কোনও দুস্কৃতিকারী অথবা সংঘবদ্ধ চক্র এটা করতে পারে। জড়িতদের অচিরেই গ্রেপ্তার করা হবে এবং এর রহস্য উদঘাটন করা হবে।'

পুলিশ সদরদপ্তরও এই হারকিউলিস রহস্য উদঘাটনের অপেক্ষায় রয়েছে। পুলিশ সদরদপ্তর ডিআইজি (মিডিয়া অ্যান্ড প্লানিং) এস এম রুহুল আমীন জানান, 'পুলিশ সদর দপ্তর থেকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। আশা করছি অল্প কিছুদিনের মধ্যে এ রহস্য উদঘাটন হবে।'

মানবাধিকার কমিশনের সাবেক চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মিজানুর রহমানের মতে, এই রহস্য দূর না হলে প্রশাসনের ওপর সন্দেহ থেকেই যাবে। জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের সাবেক চেয়ারম্যান আরও বলেন, খুঁজে বের করে যদি দেখাতে পারেন যে এরা হচ্ছে হারকিউলিস, এরা অপরাধী, তাহলে জনমনে স্বস্তি ফিরে আসবে। আর আইন-শৃংঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর দাবি, যে তাদের সঙ্গে এর কোনো সম্পৃক্ততা নাই। তখন এটা প্রমাণিত হবে।'

আর মহিলা পরিষদের সভাপতি আয়শা খানম মনে করেন, বিচারবহির্ভূত হত্যা নয়, ধর্ষণের মত অপরাধের সমাধান করতে হবে আইনের শাসন দিয়েই।

বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের সভাপতি আয়শা খানমের মতে, 'আমরা এ ধরণের প্রক্রিয়াকে কোন ভাবেই সমর্থন করি না। এটি কিন্তু ভীতি তৈরি করবে। ভয়ের প্রক্রিয়া দিয়ে কোনও ধরণের মানবিক সংস্কৃতি, গণতান্ত্রিক সংস্কৃতি সৃষ্টি হবে না।'

আরও পড়ুন

বিশ্বের প্রথম সমকামী ক্রিকেটার মা হচ্ছেন

ক্রিকেট বিশ্বে নতুন এক ইতিহাসের জন্ম দিলেন নিউজিল্যান্ড নারী ক্রিকেট দলের অধিনায়ক অ্যামি স্যাটারওয়েট এবং ডানহাতি পেসার লিয়া তাহুহু। সমকামী এই ক্রিকেটার দম্পত্তি...

খালেদাকে মুক্ত করতে নতুন লড়াইয়ে 'খালেদার স্কুটি সঙ্গী'

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া কোথাও গেলে তার গাড়িবহরের সঙ্গে স্কুটি নিয়ে থাকতেন ডালিয়া রহমান।বিএনপির নেতাকর্মীদের কাছে ‘খালেদার স্কুটি সঙ্গী’ হিসেবে...

শেখ হাসিনার ট্রেনে হামলা মামলায়: সাজাপ্রাপ্ত আসামি টেনুর মৃত্যু

১৯৯৪ সালে পাবনার ঈশ্বরদীতে তৎকালীন বিরোধীদলীয় নেতা ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বহনকারী ট্রেনে গুলি ও বোমা হামলা মামলায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামি হাকি...

পুরনো বাইসাইকেলে কোটি টাকার হেরোইন বানিজ্য

একটি আধা ভাঙ্গা পুরনো বাইসাইকেলে চড়েই কোটি কোটি টাকার হেরোইন ডিলারদের কাছে সরবরাহ করছিলেন শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী নাজিবুর রহমান। পরে র‌্যাবের অভিযানে বৃহস্পতিব...

শেখ হাসিনার ট্রেনে হামলা মামলায়: সাজাপ্রাপ্ত আসামি টেনুর মৃত্যু

১৯৯৪ সালে পাবনার ঈশ্বরদীতে তৎকালীন বিরোধীদলীয় নেতা ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বহনকারী ট্রেনে গুলি ও বোমা হামলা মামলায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামি হাকি...

পেছালো রিফাত হত্যা মামলার চার্জশিটের দিন

বরগুনার রিফাত হত্যা মামলায় চার্জশিট দেয়ার দিন পিছিয়ে তেসরা সেপ্টেম্বর নির্ধারণ করেছে আদালত। সকালে বরগুনার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সিরাজুল ইসলাম গাজীর আদা...