DBC News
ছেলে হত্যার বিচার না পেয়ে মানসিক বিপর্যস্ত দিয়াজের মা

ছেলে হত্যার বিচার না পেয়ে মানসিক বিপর্যস্ত দিয়াজের মা

ছেলে হত্যার বিচার না পেয়ে মানসিক বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছেন, ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সহ সম্পাদক দিয়াজ ইরফান চৌধুরীর মা জাহেদা আমিন চৌধুরী। খাওয়া দাওয়া প্রায় ছেড়েই দিয়েছেন তিনি। ছেলের শোকে কান্নাই এখন তার সঙ্গী।

গেলো বুধবার চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় তৃতীয় শ্রেণি কর্মচারী সমিতির বার্ষিক ক্রীড়া অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। এ উপলক্ষ্যে বের করা স্যুভেনিরে ছেলে দিয়াজ হত্যা মামলার প্রধান আসামি আলমগীর টিপুর ছবি সংবলিত শুভেচ্ছা বাণী দেখে, শোকে কাঁদতে কাঁদতে অসুস্থ্য হয়ে পড়েন তিনি। এ সময় তাকে ভর্তি করা হয় হাসপাতালে।

পরে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, 'ছাত্রলীগের সভাপতি কীভাবে দিয়াজ হত্যার প্রধান আসামি আলমগীর টিপুর শুভেচ্ছা বাণী ছাপিয়ে রাখে স্যুভেনির বইতে। দিয়াজ হত্যার আরেক আসামি মালেককেও ঘোরাফেরা করতে দেখি।' 

উল্লেখ্য, দিয়াজ হত্যা মামলার গত দুই বছরেও কোন কূল কিনারা করতে পারেনি সিআইডি। চাঞ্চল্যকর এই মামলায় আদালতের নির্দেশনা থাকলেও কোনো আসামিকেই গ্রেপ্তার ও চার্জশিট দিতে পারেনি পুলিশ।

দিয়াজের মা জাহেদা আমিন চৌধুরী আরও অভিযোগ করেন, 'সবাই প্রশাসনের কাছে জিম্মি। প্রশাসন যেন খুনি আসামীদেরকে আশ্রয়-প্রশ্রয় দিয়ে চলছে।'

এ ব্যাপারে, চট্টগ্রাম সহকারী পুলিশ সুপার ও তদন্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন খান বলেন, 'এভিডেন্স পেলেই আমরা তাদেরকে গ্রেপ্তার করবো। এটি একটি আত্মহত্যামূলক মামলা ছিল, তবে আমরা এটাকে হত্যা মামলা প্রমাণ করতে পেরেছি।'

এদিকে, দিয়াজ হত্যার বিচারের দাবিতে রাজপথে কর্মসূচি না দিলেও, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সরব তার অনুসারীরা। শিগগিরই কর্মসূচি দেয়া হবে বলে জানিয়েছে ছাত্রলীগের একাংশ। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক সহ সভাপতি মোহাম্মদ মামুন জানান, 'আমরা শিগগিরি কর্মসূচি দেবো, যেটা দিয়াজ হত্যার বিচারের দাবীকে ত্বরান্বিত করতে সহায়ক ভূমিকা পালন করবে।'

২০১৬ সালের ২০শে নভেম্বর রাতে নিজ বাসা থেকে দিয়াজের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় দিয়াজের মা বাদী হয়ে আদালতে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক আনোয়ার হোসেন ও বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আলমগীর টিপুসহ ১০ জনকে আসামি করে হত্যা মামলা করেন।

আরও পড়ুন

শেখ হাসিনার ট্রেনে হামলা মামলায়: সাজাপ্রাপ্ত আসামি টেনুর মৃত্যু

১৯৯৪ সালে পাবনার ঈশ্বরদীতে তৎকালীন বিরোধীদলীয় নেতা ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বহনকারী ট্রেনে গুলি ও বোমা হামলা মামলায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামি হাকি...

'বিএনপি-জামায়াতের মদদেই গ্রেনেড হামলা'

বিএনপি-জামায়াতের মদদেই ২১শে আগস্ট গ্রেনেড হামলা হয়েছিল বলে মনে করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, রাজনৈতিক সভায় যুদ্ধের অস্ত্র গ্রেনেড হামলা নজিরবিহীন।&n...

রেখাচিত্রে সারাদেশে ডেঙ্গুর বিস্তার-৩

ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালগুলোতে আগের থেকে রোগীর চাপ কমছে।  দুই দশক আগে বাংলাদেশে ডেঙ্গু জ্বর প্রথম দেখা দিলেও এ বছর আক্রান্তের সংখ্যা সব রেকর্ড ছাড়িয়েছে...

শেখ হাসিনার ট্রেনে হামলা মামলায়: সাজাপ্রাপ্ত আসামি টেনুর মৃত্যু

১৯৯৪ সালে পাবনার ঈশ্বরদীতে তৎকালীন বিরোধীদলীয় নেতা ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বহনকারী ট্রেনে গুলি ও বোমা হামলা মামলায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামি হাকি...

সব প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এক বেলা খাবার নিশ্চিতের লক্ষ্যে 'জাতীয় স্কুল মিল নীতি' অনুমোদন

পর্যায়ক্রমে ২০২৩ সালের মধ্যে দেশের সব সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের এক বেলা খাবার নিশ্চিত করার লক্ষ্যে ‘জাতীয় স্কুল মিল নীতি ২০১৯’ এর খসড়...

‘আমাকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেয়া হয়েছে’

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সহ সভাপতি (ভিপি) নুরুল হক দাবি করেছেন, ভিপি হবার পর পাঁচবার তাকে হামলা করেছে ক্ষমতাসীন দলের নেতাকর্মীরা। এজন্য...

শেখ হাসিনার ট্রেনে হামলা মামলায়: সাজাপ্রাপ্ত আসামি টেনুর মৃত্যু

১৯৯৪ সালে পাবনার ঈশ্বরদীতে তৎকালীন বিরোধীদলীয় নেতা ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বহনকারী ট্রেনে গুলি ও বোমা হামলা মামলায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামি হাকি...

৫ কেজি হেরোইনসহ র্শীষ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার

রাজশাহীতে ৫ কেজি ২০ গ্রাম হেরোইনসহ র্শীষ মাদক ব্যবসায়ী নাজিবুর রহমানকে গ্রেপ্তার করছেে চাঁপাইনবাবগঞ্জ র‌্যাব-৫’র সদস্যরা। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজশ...