DBC News
রোনালদোর হ্যাটট্রিকে কোয়ার্টার ফাইনালে য়্যুভেন্তাস

রোনালদোর হ্যাটট্রিকে কোয়ার্টার ফাইনালে য়্যুভেন্তাস

উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর হ্যাটট্রিকে কোয়ার্টার ফাইনালে উঠেছে য়্যুভেন্তাস। প্রথম লেগে পিছিয়ে থাকার পর, ২য় লেগে অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদকে ৩-০ গোলে হারিয়েছে মাসিমিলিয়ানো আল্লেগ্রির দল। অন্য ম্যাচে শালকেকে ৭-০ গোলে উড়িয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে উঠেছে ম্যানচেস্টার সিটি।

কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করতে য়্যুভেন্তাসকে করতে হবে অতিমানবীয় কিছু। অ্যাথলেটিকের জালে জড়াতে হবে অন্তত তিন গোল, আর বিপরীতে হজম করা যাবে না একটাও। এমন কঠিন সমীকরণের ম্যাচে জ্বলে উঠলেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। আর চ্যাম্পিয়ন্সলিগ কিং এর আগুনে শেষ হয়েছে অ্যাথলেটিকোর শেষ আটের স্বপ্ন।

অ্যালিয়েঞ্জ অ্যারেনাতে শুরু থেকেই আধিপত্য দেখিয়েছে স্বাগতিকরা। ম্যাচের ২৭ মিনিটেই শুরু রোনালদো ম্যাজিক। দারুণ এক হেডে দলকে লিড এনে দেন সি আর সেভেন।

তবে, বিরতির পর রোনালদোর আরেক হেডে প্রথম লেগে এগিয়ে থাকা অ্যাথলেটিকোর সঙ্গে গোল ব্যবধানে সমতায় ফেরে য়্যুভেন্তাস। গোলকিপার প্রথমে বল ফিরিয়ে দিলেও ভি আর প্রযুক্তিতে গোল পায় ওল্ড লেডিরা।

রোনালদো জাদু বাকি ছিল তখনো। ৮৬ মিনিটে পেনাল্টি পায় য়্যুভেন্তাস। মোক্ষম সুযোগটা কাজে লাগাতে ভুল করেননি পর্তুগীজ উইংগার, দলের কোয়াটার ফাইনালের সঙ্গে পুরা করেছেন নিজের হ্যাট্ট্রিক।

অন্যম্যাচে শালকেকে নিয়ে ছেলেখেলা করেছে ইপিএল চ্যাম্পিয়ন ম্যান সিটি। প্রথম লেগে লড়াইয়ের ইঙ্গিত দিলেও এদিন ছন্নছাড়া জার্মান ক্লাবটি। ঘরের মাঠে ওদের জালে একে একে সাত বার বল জড়িয়েছে সিটিজেনরা।

৩৫ মিনিটে পেনাল্টি থেকে গোল উৎসব শুরু করেন সার্জিও আগুয়েরো। তিন মিনিট বাদেই লিড ডাবল করেন এই স্ট্রাইকার। বিরতির আগে স্কোরলাইন ৩-০। ৫৬ মিনিটে ব্যধান ৪-০ করেন রাহিম স্টার্লিং। ৭১ মিনিটে দলের হয়ে ৫ নম্বর গোল করেন সিলভা আর এর সাত মিনিট পরেই গোলের দেখা পান ফোডেন।

শালকের কফিনে শেষ পেরেক ঠুকেছেন গ্যাব্রিয়েল জেসুস। ১০-২ গোলে এগিয়ে থেকে কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করে সিটিজেনরা।