DBC News
তৃতীয় টেস্টে ঘুরে দাঁড়ানোর প্রত্যাশা টাইগারদের

তৃতীয় টেস্টে ঘুরে দাঁড়ানোর প্রত্যাশা টাইগারদের

বোলিং লাইন আপ মোটামুটি ভাল করলেও ব্যাটিং ব্যর্থায় দুই টেস্টেই ইনিংস ব্যবধানে হার। তবে ওমন হেরেও দলের পজিটিভ দিক খুঁজছেন কোচ স্টিভ রোডস। তিনি মনে করছেন ক্রাইস্টচার্চে ঘুরে দাঁড়াবে দল।

সাউথ আফ্রিকা, ওয়েস্ট ইন্ডিজ এবার নিউজিল্যান্ড সফর। একটা বাদে শেষ ১২ ইনিংসের দলীয় সংগ্রহ তিনশোতে পার করতে পারেনি বাংলাদেশ। চোটে কাবু সাকিব- মুশফিক। ওদের শুন্য জায়গা পূরন করতে পারেনি দলের বাকীরা।

ব্যাটিং ভোগাচ্ছে নিয়মিত। এটাকে নিয়তিই মেনে নিয়েছেন হেড কোচ স্টিভ রোডস। তিনি বলেন, 'কিছু প্লেয়ার লড়াই করেছে। কিন্তু মুমিনুলসহ বাকীরা পারেনি। সত্যি বলতে, ক্রিকেটে প্রতিপক্ষ্, এমন আধিপত্য দেখালে অনেক সময় ভেঙে পড়ে অনেকে। তবুও মিঠুন যে সাহস দেখিয়ে ব্যাট করেছে, যে রান করেছে তারচেয়ে বেশী তাঁর প্রাপ্য ছিলো। রিয়াদ ছিলো অসাধারন। তারপরও এমন হলো।'

টেস্ট জিততে লাগে ২০ উইকেট। তবে বিদেশে অনভিজ্ঞ টাইগার বোলিং আক্রমনের এই সামর্থ্য আছে কিনা, আছে সেটা নিয়ে সংশয়। যে কারনে দল হিসেবে বাংলাদেশের সামর্থ্যও এখন প্রশ্নের মুখে।

হেড কোচ স্টিভ রোডস বলেন, 'হয়তো আমাদের বাজে সময় যাচ্ছে। তবে ভুলে গেলে চলবে না, আমরাও দেশের মাটিতে অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ড, উইন্ডিজের মত দলকে হারাই। বলেন তো, দেশে কতটুকু বল করার সুযোগ পায় আমাদের পেসাররা? খালেদ ইবাদত কয়টা প্রথম শ্রেণীর ম্যাচ খেলেছে। ওরা এখনো শিখছে। রাতারাতি উন্নতির প্রত্যাশাটা ঠিক নয়।'

টানা দুই টেস্টে অসহায় আত্মসমর্পন। বেসিন রিজার্ভে লজ্জা দুই দিনেই। কঠিন কিউই কন্ডিশনে শেষ টেস্টে অন্তত চ্যালেঞ্জ নিতে চান টাইগারদের ইংলিশ ট্যাকটিশিয়ান।

স্টিভ রোডস আরও জানান, 'তাদের কিছু বোলার আর ব্যাটসম্যান আছে যারা র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষ দশে আছে। নিউজিল্যান্ডের কন্ডিশনে ওদের সঙ্গে লড়াই করতে যে স্কিল লাগে, সে ধরনের কিছু ক্রিকেটারের ঘাটতি ছিলো। তবে যা গেছে, গেছে। আমাদের আরা ভালো করতে হবে। এখন শেষ ম্যাচটা জয়ের বিশ্বাস রাখতে হবে। অন্তত বাংলাদেশের ক্রিকেটপ্রেমী মানুষদের মুখে হাসি ফোটাতে চাই।'

দুদিন বিরতির পর শনিবার থেকে ক্রাইস্টচার্চে শুরু হচ্ছে তৃতীয় ও শেষ টেস্ট।