DBC News
নিউজিল্যান্ডে অস্ত্র আইন পরিবর্তনের ঘোষণা

নিউজিল্যান্ডে অস্ত্র আইন পরিবর্তনের ঘোষণা

নিউজিল্যান্ডের অস্ত্র আইন পরিবর্তনের ঘোষণা দিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী জ্যাসিন্ডা আরডার্ন।

ক্রাইস্টচার্চে দুটি মসজিদে হামলার একদিন পর, শনিবার ওয়েলিংটনে এক সংবাদ সম্মেলনে এমন ঘোষণা দিলেন তিনি। এ সময় তিনি জানান, হামলাকারীর পাঁচটি আগ্নেয়াস্ত্র ছিল, যার মধ্যে লাইসেন্স ছিল কেবলমাত্র একটির। এ ধরনের ঘটনা এড়াতেই অস্ত্র আইন পরিবর্তন প্রয়োজন বলে মনে করেন তিনি।  

হামলাকারী অস্ট্রেলিয়ান নাগরিক। তিনি বিভিন্ন দেশ ঘুরে বেরিয়েছেন এবং সে কোনও দেশে দীর্ঘমেয়াদী বাসিন্দা ছিলেন না বলেও জানান আরডার্ন। 

এর আগে শুক্রবার দুপুরে, ক্রাইস্টচার্চের দুটি মসজিদে বন্দুকধারীর হামলায় প্রায় ৪৯ জন নিহত ও ৪০ জনের বেশি আহত হয়। আহতদের মধ্যে দুইজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

এই ঘটনায় পুলিশ একজন নারী ও তিনজন পুরুষকে আটক করে। প্রায় ২০ মিনিট এই গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। এর মধ্যে আক্রান্ত আল নূর মসজিদে প্রায় দেড়শর মতো মুসল্লি ছিল।

নিউজিল্যান্ডের গণমাধ্যম জানায়, হামলা হয়েছে দুটি মসজিদ ও একটা হাসপাতালে। হামলার কিছুক্ষণ আগে এই মসজিদেই নামাজে গিয়েছিলেন বাংলাদেশ দলের কয়েকজন ক্রিকেটার। এখনো পর্যন্ত হামলার দায় কেউ স্বীকার করেনি। 

ক্রাইস্টচার্চে হামলার পরপরই সংবাদ সম্মেলনে আসেন নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জ্যাসিন্ডা আরডের্ন। নিহতদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়ে তিনি হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়ে তিনি বলেন, 'আমরা এই বর্বরোচিত হামলায় শোকাহত। এ ধরনের হামলা আগে কখনোই ঘটেনি আমার দেশে। দেশের ইতিহাসের সবচেয়ে অন্ধকার দিনগুলোর একটি এটি। নিহতদের প্রতি আমার গভীর সমবেদনা। সাহস হারাবেন না, ধৈর্য্য ধরুন। নিউজিল্যান্ডে সন্ত্রাসের কোন স্থান নেই।'