DBC News
রাজধানীসহ সারাদেশে কালবৈশাখী, বজ্রপাতে নিহত ৪

রাজধানীসহ সারাদেশে কালবৈশাখী, বজ্রপাতে নিহত ৪

রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে ঝড়োহাওয়ার সঙ্গে বৃষ্টি ও শিলাবৃষ্টি হয়েছে। রাজধানীতে দুপুরে কিছুটা রোদ দেখা দিলেও সন্ধ্যার পর আবারো ঘন্টায় ৮৫ কিলোমিটার বেগে ঝড়োহাওয়া বয়ে যায়। আবহাওয়া অফিস জানায়, এটি মিনিট খানেকের বেশি স্থায়ী ছিল। বৃষ্টির কারণে সড়কে গণপরিবহনের সংখ্যা ছিল কম। 

সকালে বৃষ্টির কারণে অফিসগামী মানুষকে ভোগান্তিতে পড়তে হয়। রাস্তার মোড়ে মোড়ে বাসের জন্য অপেক্ষা করতে হয় লোকজনকে। এতে দুর্ভোগে পড়েন তারা।

এদিকে, সন্ধ্যায় ঝড়ে কোথাও কোথাও গাছ ভেঙে পড়ে রাস্তা বন্ধ হয়ে যায়। ফলে কিছু সময়ের জন্য যানচলাচলে বাধা সৃষ্টি হয়। আবহাওয়া অফিসে জানায়, ঢাকা, টাঙ্গাইল, ময়মনসিংহ, ফরিদপুর, মাদারীপুর, কুমিল্লা, সিলেটে ঘন্টায় ৬০ থেকে ৮০ কিলোমিটার বেগে ঝড়োহাওয়া বয়ে যেতে পারে। সেসঙ্গে থাকবে বজ্রবৃষ্টি।  এসব এলাকার নদীবন্দরগুলোকে ২ নম্বর নৌ-হুঁশিয়ারি সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। পাশাপাশি বিক্ষিপ্ত শিলাবৃষ্টি হতে পারে । 
এদিকে, সিলেট ও সুনামগঞ্জে বজ্রপাতে চারজন নিহত হয়েছে। এর মধ্যে সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জে বজ্রপাতে তিনজন নিহত হয়। আজ দুপুরে উপজেলার তেরাকুড়ি এলাকায় এই বজ্রপাতের ঘটনা ঘটে। 

নিহতরা হলেন- তেরাকুড়ি এলাকার জিতু মিয়া, গোলাপগঞ্জ উপজেলার লক্ষীপাশার রাজন মিয়া ও আনোয়ার হোসেন। সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজারে বজ্রপাতে আরো একজন নিহত হয়েছে। সন্ধ্যায় নাটোরের নলডাঙ্গায় শাহিন মণ্ডল নামে এক কলেজ ছাত্রের মৃত্যু হয়েছে।

এছাড়া, ঝড়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে সড়কে গাছ পড়ে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। বৈরী আবহাওয়ায় দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া, শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি ও চাঁদপুর-শরীয়তপুর নৌপথে সব ধরনের নৌযান চলাচল বন্ধের নির্দেশ দেয় কর্তৃপক্ষ।