DBC News
বৌদ্ধ পূর্ণিমায় বাংলাদেশ ও পশ্চিমবঙ্গে সন্ত্রাসী হামলার আশঙ্কা

বৌদ্ধ পূর্ণিমায় বাংলাদেশ ও পশ্চিমবঙ্গে সন্ত্রাসী হামলার আশঙ্কা

আসন্ন বৌদ্ধ পূর্ণিমায় বাংলাদেশ ও পশ্চিমবঙ্গে সন্ত্রাসী হামলার আশঙ্কা করছে ভারতীয় কেন্দ্রীয় গোয়ন্দা দপ্তর-আইবি। জামাতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশ- জেএমবি অথবা জঙ্গিগোষ্ঠী আইএস এ হামলা চালাতে পারে বলে জানানো হয়েছে।

শুক্রবার বিকেলে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের কাছ থেকে বার্তা পাওয়ার পর সতর্কতা জারি করেছে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার।

এদিকে, বাংলাদেশ পুলিশ সদর দপ্তর থেকে জানানো হয়েছে সন্ত্রাসী ও নাশকতামূলক হামলার সুনির্দিষ্ট কোনও আশঙ্কা নেই। তবে বাড়তি সতর্কতা হিসেবে গোয়েন্দা সংস্থাগুলোকে নজরদারি বাড়ানোর পাশাপাশি নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

বিশেষ করে বৌদ্ধ মন্দিরসহ সকল ধর্মীয় উপাসনালয়গুলোকে সুরক্ষিত রাখার জন্য পুলিশের সকল ইউনিটকে প্রয়োজনীয় নির্দশনা দেয়া হয়েছে। বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে চেকপোস্ট স্থাপন করে তল্লাশী কার্যক্রম পরিচালনা করতে বলা হয়েছে।

স্থানীয় ধর্মীয় নেতৃবৃন্দ ও জনগনের সাথে পরামর্শ করে নিরাপত্তা পরিকল্পনা সাজাতে বলা হয়েছে। সার্বিক নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে কমিউনিটি পুলিশিং ও স্থানীয় ভলানটিয়ারদের সহায়তা নিতেও পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

এর আগে, শ্রীলঙ্কার পর বাংলাদেশ ও পশ্চিমবঙ্গে হামলার হুমকি দেয় জঙ্গিগোষ্ঠী আইএস। এমন আশঙ্কা প্রকাশ করেন ভারতীয় গোয়েন্দারা। ভারতীয় একটি গোয়েন্দা সংস্থার বরাত দিয়ে এই খবর প্রকাশ করে টাইমস অফ ইন্ডিয়া।

টেলিগ্রাম মেসেঞ্জারের একটি আইএসপন্থী চ্যানেল থেকে বাংলায় লেখা একটি পোস্টার প্রকাশ করা হয়। যাতে লেখা ছিল 'শীঘ্রই আসছি...ইনশাআল্লাহ'। আল-মুরসালাত নামের একটি জঙ্গি সংগঠনের লোগোও ছিল পোস্টারটিতে। এমন পোস্টার প্রকাশের পর এই হামলার আশঙ্কা করেন গোয়েন্দারা।



এদিকে, পোস্টারটি জঙ্গিগোষ্ঠী আইএসের কিনা সে সত্যতা যাচাই করা না গেলেও শ্রীলঙ্কায় বোমা হামলার পর এই ঘটনাকে গুরুত্বের সঙ্গে দেখছেন ভারতীয় গোয়েন্দারা।

বাংলাদেশে ইতোমধ্যেই জামায়াত-উল-মুজাহিদিনের মাধ্যমে আইএসআইএস-এর উপস্থিতি যথেষ্ঠ শক্তিশালী ভাবেই রয়েছে। জেএমবি সদস্যরা লোক নিয়োগের জন্য মাঝেমধ্যেই কলকাতা ও পশ্চিমবঙ্গের অন্যত্র ঘোরাঘুরি করে। গত বছরের প্রথম দিকে বাবুঘাট থেকে আরিফুল ইসলাম নামে এক জেএমবি সদস্যকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এই আরিফুল আবার ২০১৮তে বুদ্ধগয়া বিস্ফোরণের অন্যতম অভিযুক্ত।

এছাড়া গত বছরের জুলাই মাসে আইএসআইএস-জেএমবি সদস্য মোহাম্মদ মুসিরুদ্দিন ওরফে মুসাকে যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআই জিজ্ঞাসাবাদ করে। পশ্চিমবঙ্গের সিআইডি মুসাকে বুর্দান স্টেশনের একটি ট্রেন থেকে তাকে গেপ্তার করে।

মুসিরুদ্দিন, যে দীর্ঘদিন ধরে তামিলনাড়ুর তিরুপুর জেলায় লুকিয়ে ছিল, জানিয়েছে তার সঙ্গে জেএমবি সদস্য আমজাদ শেখের সঙ্গে যোগাযোগ রয়েছে। আমজাদ শেখ ২০১৪ সালের খাগড়াগাঢ়ের জোড়া বোমা হামলা মামলায় গ্রেপ্তার রয়েছে। তিন বছর আগে, স্থানীয় কিছু জেএমবি’র স্লিপার সেল পশ্চিব বঙ্গের বিভিন্ন জেলায় পোস্টার লাগিয়ে তরুণদের এই সন্ত্রাসী সংগঠনে যোগ দেয়ার আহ্বান জানায়।

আরও পড়ুন

শিশু ওয়ার্ডে ধারণক্ষমতার কয়েক গুণ বেশি রোগী

পিরোজপুর জেলা হাসপাতালের শিশু ওয়ার্ডে বিগত কয়েক সপ্তাহ ধরে ধারণ ক্ষমতার কয়েক গুণ রোগী ভর্তি রয়েছে। ফলে ওয়ার্ডে বেড না পেয়ে, হাসপাতালের করিডোরে শিশুদের নিয়ে অবস্...

সাতক্ষীরার ডেঙ্গু আক্রান্ত ছাত্রের খুলনায় মৃত্যু

সাতক্ষীরার কালিগঞ্জের ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে আলমগীর গাজী (১৪) নামের এক মাদ্রাসা ছাত্র খুলনায় মারা গেছে। বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টার দিকে সে মারা যায়। এই প্রথম সাতক্ষীরা...

পাক সেনাপ্রধানের সঙ্গে ইমরান খানের বৈঠক

জম্মু-কাশ্মীরের বর্তমান নিরাপত্তা পরিস্থিতি নিয়ে পাকিস্তানের সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল জাভেদ কামার বাজওয়ার সঙ্গে বৈঠক করেছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। বৃহ...

ইয়েমেনের লক্ষ লক্ষ জনগণ মৃত্যু ঝুঁকিতে

ইয়েমেনে 'জাতিসংঘ মানবিক তৎপরতার' অর্থ শেষ হয়ে আসছে এবং শীঘ্রই সেখানে ১০ লক্ষের অধিক জনগণের খাদ্য রেশন সীমিত করা হবে। দাতাদের তরফ থেকে নুতন অর্থ সাহায্যের অঙ্গীক...