DBC News
রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় তীব্র পানির সংকট

রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় তীব্র পানির সংকট

রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় দেখা দিয়েছে তীব্র পানির সংকট। রমজান মাস আর গরমে পর্যাপ্ত পানির অভাবে নাকাল জনজীবন। ভুক্তভোগীরা বলছেন নানাভাবে চেষ্টা করেও সমাধান মিলছে না। সংশ্লিষ্ট এলাকার ওয়াসা কর্মকর্তা বলছেন, পানির চাহিদা কয়েকগুণ বেড়ে যাওয়ায় কোথাও কোথাও সমস্যা হচ্ছে।

তীব্র গরম আর যানজটে নাকাল জনজীবন। এই অবস্থায় বাসাবাড়িতে পানির সংকট। রাজধানীর আদাবরের বাসিন্দারা জানালেন দিনের পর দিন পানি পান না তারা।

এলাকাবাসি জানান, 'দুই এক বালতি পানি ভোরার পর পানি চলে যায়। আর যে পানি পাওয়া যায় সে পানি দিয়েতো কিছুই করতে পারি না। কারণ এই পানি এতো নোংরা যা বলার উপায় নেই। আর রান্না বান্নার কাজে একেবারেই ব্যবহার করা যায় না।'

তারা আরও জানান, 'এখন রোমজান মাস, আমরা পানি পাই না। এক মগ পানি দিয়ে আমরা ওযু করি। গোসলের তো নামই নাই। ইফতারি তৈরি করতে পারি না। এমনিতেই গরম, তার ওপর যদি এরকম পানির সমস্যা থাকে তাহলে কিভাবে চলবে।'

রমজান মাস আর গরমে কষ্ট তীব্র আকার ধারণ করেছে। জানালেন, ওয়াসার শরণাপন্ন হয়েও মিলছে না সমাধান।

ওয়াসার সম্পর্কে এলাকাবাসি জানান, 'ওয়াসার সাথে যোগাযোগ করে আসলে সঠিক সময় পাওয়া যায় না। এক কথায় কোনও কাজ হয় না।'

ওয়াসা বলছে গরমে পানির চাহিদা কয়েকগুণ বেড়ে যাওয়ায় বেড়েছে সংকট।

ঢাকা ওয়াসা মোডস জোন-৩ সহকারী প্রকৌশলী আবুল কালাম জানান, ‘গরমের কারণে পানির চাহিদা প্রায় দুই থেকে তিনগুণ বেড়ে গেছে। যার ফলে আমরা সব জায়গাতে সমানভাবে পানি দিতে পারছি না। এছাড়া পানির লাইনে একটু কম আছে, এইজন্য সমস্যাটা হচ্ছে।’

রাজধানীর পশ্চিম রামপুরায়ও গেল এক সপ্তাহ ধরে পানি নেই। কর্তৃপক্ষের কাছে বার বার ধর্ণা দিয়েও ব্যর্থ হওয়ায় বিক্ষোভে নেমেছেন এলাকাবাসী।

এলাকাবাসি জানান, ‘পানির ব্যবসায় করছে, তারা বলছে পাঁচশ’ টাকার গাড়ি এক হাজার টাকা দিলে পাবো। এই রোমজান মাসে আমাদের কষ্ট হচ্ছে। এলাকা এখন মরুভূমি হয়ে গেছে।’

এছাড়া পশ্চিম কাজীপাড়া, মিরপুর ১৪, কল্যাণপুর, গুদারা ঘাট, বাড্ডা, হাতিরঝিলসহ বিভিন্ন এলাকায় রয়েছে পানির সংকট।