DBC News
'টাকা নিয়ে সরকারের সঙ্গে আপস করেছে বিএনপি ও ঐক্যফ্রন্টের কোনো কোনো নেতা'

'টাকা নিয়ে সরকারের সঙ্গে আপস করেছে বিএনপি ও ঐক্যফ্রন্টের কোনো কোনো নেতা'

নির্বাচনের আগে ২ কোটি করে টাকা নিয়ে সরকারের সঙ্গে আপস করেছেন বিএনপি ও ঐক্যফ্রন্টের কোনো কোনো নেতা। রাজধানীতে এক গোলটেবিল এমন অভিযোগ করেছেন ২০ দলীয় জোটের শরিক নেতারা। বিএনপিকে জোটের নেতৃত্বও ছেড়ে দিতে বলেছেন তারা। শপথ নিয়ে সরকারের বৈধতা দিয়েছে এমন অভিযোগ করে বিএনপির নানা বক্তব্যের ব্যাখাও চেয়েছেন শরিকরা।

মধ্যবর্তী নির্বাচন ও খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবিতে জাতীয় প্রেসক্লাবে ২০ দলীয় জোটের শরীক এলডিপি আয়োজিত গোলটেবিল আলোচনায় সবাই মুখর ছিলেন বিএনপির সমালোচনায়।  এমনকি বাদ যাননি বিএনপি নেতাও।

মহাসচিবের সমালোচনা করে বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল বলেন, 'শপথে প্রথমে অংশগ্রহণ না করা ভুল ছিল এসব কথা আমাদেরকে আগে না বলে কেন আপনি জনসম্মুখে বললেন। আগে আমাদের বলবেন তারপর চিন্তা ভাবনা করে বলবেন কোনটা ভুল, কোনটা সঠিক।'

এলডিপি মহাসচিব ড. রেদওয়ান আহমেদ জানান, 'ম্যানডেট দেয়ার জন্য বৈধ নির্বাচন হিসেবে আপনি সংসদে পাঁচজন লোক পাঠিয়ে দিবেন। আর আপনি মহাসচিব কৌশলে স্বাস্থ্যগত কারণ দেখিয়ে সংসদে যাবেন না। এমন রাজনীতি তো ২০ দল করে না। এই রাজনীতি নিয়ে ২০ দল এবং দেশের জনগণ প্রশ্ন রাখে। সবাই এগুলোর ব্যাখ্যা চায়।'

জামায়াতে ইসলামীর নায়েবে আমির মিয়া গোলাম মো.পারওয়ার বলেন, যে জনগণের জন্য আমরা রাজনীতি করি তাদের সেন্টিমেন্ট নিয়ে খেলা করাকে রাজনীতির কৌশল বলে না। ব্যক্তির প্রয়োজনে আলাদা ব্যাখ্যা দিয়ে কৌশল আর আপোষকে আপনি এক করেছেন।

জোটের দুই শরীক দলের প্রধান কর্নেল অলি আহমদ ও সৈয়দ মুহাম্মদ ইব্রাহিম ২০ দলের বর্তমান নেতৃত্ব ব্যর্থ বলে উল্লেখ করেন।

এলডিপি চেয়ারম্যান কর্নেল (অব) অলি আহমদ বলেন, 'বিরোধীদলের অনেকেই ২ কোটি টাকা করে নিয়ে সরকারের সঙ্গে আলাপ আলোচনার মাধ্যমে বিএনপি এবং ২০ দলীয় ঐক্যজোটকে শেষ পর্যন্ত নির্বাচনে রাখার দায়িত্ব নিয়েছিল। যার জন্য অনেকেই বলেছে নির্বাচন খুব ভালো হয়েছে।'

তিনি আরও বলেন, বেগম খালেদা জিয়ার পক্ষে জেলে থেকে আমাদেরকে নির্দেশ দেয়া সম্ভব না। তারেক রহমানও লন্ডনে থেকে সক্রিয়ভাবে মাঠে থাকা সম্ভব না। তাই আমাদেরকেই দায়িত্ব নিতে হবে এবং আমি সেই দায়িত্ব নিতেও প্রস্তুত। আমি আশা করি আপনারা আমার সঙ্গে থাকলে আমি যেকোন ঝুঁকি নিতে পিছপা হব না।

বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম বলেন, ২০ দল এই মুহূর্তে তাদের কার্যকরী লেভেল থেকে নিচে আছে। আমাদের লেভেল আরো সক্রিয় করতে হবে। কবে হবে না হবে এর জন্য আমাদের বসে থাকলে চলবে না, আমার মতে ২০ দলের প্রধান সমন্বয়কারী হিসেবে কর্নেল অলি আহমেদকে নির্বাচন করা হোক।

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরউল্লাহ চৌধুরী বিএনপির সমালোচনার পাশপাশি জামায়াতকে ক্ষমা চেয়ে রাজপথে নামার আহবান জানান।

আরও পড়ুন

রাজধানীর মালিবাগে হামলার দায় স্বীকার করেছে আইএস

রাজধানীর মালিবাগে পুলিশে গাড়িতে ককটেল বিস্ফোরণের দায় স্বীকার করেছে আন্তর্জাতিক জঙ্গি গোষ্ঠী আই এস। যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক অনলাইনে জঙ্গি কার্যক্রম পর্যবেক্ষণকারী সং...

'পুলিশের গাড়িতে ককটেল বিস্ফোরণ জনমনে ভীতি সঞ্চারের চেষ্টা'

রাজধানীর মালিবাগ মোড়ে পুলিশের গাড়িতে ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনাকে প্রাথমিকভাবে জনমনে ভীতি সঞ্চারের চেষ্টা বলে উল্লেখ করেছেন ডিএমপি কমিশনার আসাদুজ্জামা...

আন্দোলন গড়তে বিএনপি ব্যর্থ, দরকার পরিবর্তন: মন্তব্য দলটির নেতাদের

সাংগঠনিক দুর্বলতার কারণেই কার্যকর আন্দোলন গড়তে ব্যর্থ হয়েছে বিএনপি। ফলে ১৬ মাসেও মুক্তি মেলেনি খালেদা জিয়ার। বর্তমান নেতৃত্বের ব্যর্থতা নিয়ে তাই কোন রাখঢাক না র...

বগুড়া-৬ আসনে জয়ের ধারা অব্যাহত রাখতে চায় বিএনপি

বগুড়া-৬ আসনের উপ নির্বাচনে প্রার্থী শুন্যতা ঠেকাতে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন বিএনপির তিন প্রার্থী। দলটি বলছে কারও মনোনয়নপত্র বাতিল হলেও অন্যজন যাতে নির্বাচনে লড়তে...