DBC News
গানে গানে মাহফুজুর রহমান, ঈদের তৃতীয় দিন বিশেষ আয়োজন

গানে গানে মাহফুজুর রহমান, ঈদের তৃতীয় দিন বিশেষ আয়োজন

পেশাগত কাজের ব্যাস্ততা কিংবা জীবনের টানাপোড়েনকে অগ্রাহ্য করেও গানের সুরধারায় নিমগ্ন থাকার উদাহরণ হয়ে আছেন অনেক সফল মানুষেরা। গণমাধ্যম ব্যাক্তিত্ব ড. মাহফুজুর রহমানও আছেন সেই দলে। নানা সমালোচনা আর বিদ্রুপকে অগ্রাহ্য করেই গান করছেন তিনি। ডিবিসি নিউজকে দেয়া একান্ত সাক্ষাৎকারে তিনি জানান এতকিছুর পরও গান নিয়ে কেন এত আগ্রহ।

ঈদের তৃতীয় দিন বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল এটিএন বাংলায় প্রচারিত হবে ড. মাহফুজুর রহমানের একক গানের অনুষ্ঠান। প্রতিবারের মতই এবারো তার গানের অনুষ্ঠান নিয়ে শুরু হয়েছে নানা আলোচনা ও সমালোচনা। ডিবিসি নিউজকে জানান তার অনুভূতির কথা।

ড. মাহফুজুর রহমান বলেন, ‘আমার বয়স ৬০ এর বেশি। এই বয়সে আমি শুরু করলাম। এই বয়সে তো বেশির ভাগ গায়করা অবসর নেয়। আর আমি এই বয়সে নতুন গান শুরু করলাম, নতুনভাবে শুরু করলাম এবং গান করে যাচ্ছি। আল্লাহ যত দিন আমার গলা ভালো রাখবেন আমি চেষ্টা করে যাব নতুন নতুন গান তৈরি করার।’

গানের প্রতি তার ভালবাসার কথা জানিয়ে ব্যাখ্যা করেন নিজের সংগীতপ্রীতির কারণ। তিনি বলেন, ‘আমি ছোটবেলা থেকে গান খুব পছন্দ করতাম। এমন কোনও শিল্পী ছিল না, যার গানের রেকর্ড ছিল না। এটিএন বাংলা যখন আমরা শুরু করলাম, তখন আমরা শিল্পী তৈরির যে উদ্যোগটা নেই, সেখানে জনপ্রিয় শিল্পী ইভা রহমানকে তৈরি করা, এগুলো করতে করতে এক পর্যায়ে দেখলাম আমি নিজেই চেষ্টা করতে পারি। আসল ব্যাপারটি হলো, সুরকে রপ্ত করা। আমি যখন এটা রপ্ত করতে পারলাম, তখন চিন্তা করলাম যে একবার চেষ্টা করে দেখি।’

ড. মাহফুজুর রহমান বলেন, ‘এবারের অ্যালবামে গান করার আগে আমার গলার অবস্থা খুব খারাপ হয়ে গিয়েছিল। তখন আমি সিঙ্গাপুরে ডাক্তার দেখালাম। তখন ডাক্তার বলে, আমি তিন মাস জোরে কোনও কথা বলতে পারবো না, গানও গাইতে পারবো না। আমার যেমন প্রতিদিন অফিসে এসে সবাই একটু শাসনের মধ্যে রাখতে হয় না হলে কাজে ফাঁকি দেয়, এটা আমার পুরোপুরি মাস খানেক বন্ধ রাখতে হয়েছিল। এ সময়ে আমি কথা বলতাম না খুব একটা। আর গান একেবারেই করি নি। এখন আল্লাহর রহমতে গলা ভালো হয়েছে। ইনশাআল্লাহ আগামী করবানি ঈদে যে গানগুলো গাব, সেখানে আমার পারফরমেন্স অনেক ভালো হবে।’

সমালোচকদের দায়িত্বশীল হওয়ার আহ্ববান জানিয়ে ড. মাহফুজ  গঠনমূলক সমালোচনাকে সাধুবাদ জানানোর কথা বলেন। অনুরোধ করেন কোনো শিল্পীর সৃষ্টিশীলতা চর্চার পথে বাঁধা তৈরি না করতে।

তিনি বলেন, ‘সমালোচকদের প্রসঙ্গে আমি বলবো, আমাকে যারা হিংসা করেন, আমি পারি অথচ তারা পারে না, এই কারণে তারা চেষ্টা করে আমি যাতে না পারি। এতে আমার কিছু যায় আসে না। বরং আমি তাদের ধন্যবাদ জানাই, কারণ তাদের সমালোচনা আমাকে আরও জনপ্রিয় করে দিয়েছে। কিন্তু কিছু লোক যারা গানের কিছু বুঝে না তারা এই সমস্ত মন্তব্য করে এটা দুঃখজনক।'

তিনি আরও বলেন, 'আমি তাদের বলবো এসব না করে নিজেরা কিছু করার চেষ্টা করেন। একজন শিল্পীর সম্পর্কে যদি এইসব আজে বাজে মন্তব্য করেন তাহলে শুরুতেই তো সেই শিল্পীর মৃত্যু হয়ে যাবে। সেই শিল্পী আর শিল্পী হতে পারবে না।’

গানের শ্রোতাদের জন্য নিজের কন্ঠস্বরকে শ্রুতিমধুর করে তুলতে নিয়মিত চর্চা চালিয়ে যাবেন বলে জানান তিনি।

আরও পড়ুন

শাকিব খানের 'পাসওয়ার্ড' নকলের অভিযোগ

‘পাসওয়ার্ড’ সিনেমার নামে নকলের অভিযোগ তুলে সেন্সর বোর্ডে অভিযোগ করলেন চলচ্চিত্রকর্মী আনন্দ কুটুম। সেই সাথে পাসওয়ার্ড যে নকল তার প্রমাণ স্বরূপ বোর্ডে...

সর্বোচ্চ আয়ের চলচ্চিত্রের তালিকায় স্থান পেতে লাগবে মাত্র ২৭৮ কোটি টাকা

অ্যাভেঞ্জার্স: এন্ডগেম’ আজ পর্যন্ত বক্স অফিসে আয় করেছে ২ দশমিক ৭৮ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। বাংলাদেশের টাকার অঙ্কে তা ২৩ হাজার ৬৩০ কোটি টাকা। সময়ের সঙ্গে এই সং...

'বরষার ভালোবাসা'র সন্ধ্যা

বর্ষার প্রথম দিনে ইন্দিরা গান্ধী কালচারাল সেন্টারের আয়োজনে অনুষ্ঠিত হলো রবীন্দ্র সংগীত সন্ধ্যা 'বরষার ভালোবাসা'। জাতীয় জাদুঘরে সবার জন্য উন্মুক্ত সংগীত আয়োজনে এ...

চলে গেলেন প্রখ্যাত নির্মাতা ও অভিনেতা গিরিশ কারনাড

ভারতের প্রখ্যাত নাট্যকার, নির্মাতা ও অভিনেতা গিরিশ করনাড মারা গেছেন।সোমবার স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ৬টায় ব্যাঙ্গালুরুর একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা...