DBC News
ইউয়েফা নেশন্স লিগের সেমিফাইনাল মুখোমুখি ইংল্যান্ড-নেদারল্যান্ডস

ইউয়েফা নেশন্স লিগের সেমিফাইনাল মুখোমুখি ইংল্যান্ড-নেদারল্যান্ডস

ইউয়েফা নেশন্স লিগের ফাইনালে পর্তুগালের সঙ্গী কে? উত্তর মিলবে আজ। দ্বিতীয় সেমিফাইনালে মাঠে নামবে ইংল্যান্ড আর নেদারল্যান্ডস। বিগ ম্যাচের আগে সুখবর দুই দলই পাচ্ছে পুরো শক্তির স্কোয়াড।

হ্যারি কেইন আর গ্যারেথ সাউথগেটের ইংল্যান্ড। বিশ্বকাপে দলটা খেলেছে সেমিফাইনাল। ফর্মটাও ধরে রেখেছে থ্রি-লায়ন্সরা। নেশন্স লিগেও কেটেছে শেষ চারের টিকিট। এবার আরেক ধাপ এগিয়ে যাবার পালা। লক্ষ্যটা শুধু ফাইনাল খেলা নয়, শিরোপা জেতা।

ক্যাপ্টেন হ্যারি কেইন শতভাগ ফিট। আছেন দলের সাথে। স্টার্লিং, রাশফোর্ড, লিনগার্ড...দলটায় গতিময় ফুটবলারের ছড়াছড়ি। ইংল্যান্ডের কোচ গ্যারেথ সাউথগেট মনে করছেন ম্যাচটা সহজ হবেনা, তবে আশাবাদী তিনি। সাউথগেট বলেন, ‘খেলোয়াড়রা সবাই মঙ্গলবারই একত্রিত হয়েছে। হাতে সময় কম, তাই খুব দ্রুতই গুছিয়ে নিতে হচ্ছে। তবে, হেন্ডারসন ছাড়া সবাই ফুল ফিট। এটা অবশ্যই সুসংবাদ।‘

ইংলিশদের সামনে বাঁধা হয়ে দাঁড়াবে নেদারল্যান্ডস। বিশ্বকাপ কোয়ালিফাই করতে পারেনি ডাচরা। ধ্বংসস্তূপ থেকে উত্থানটা ফিনিক্স পাখির মতই। দলটা নানা অঘটনের জন্ম দিয়ে তবেই সেমিফাইনালে উঠেছে।

গ্রুপে ডাচদের সঙ্গী ছিল বর্তমান বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ফ্রান্স, আগেরবারের সেরা জার্মানি। দুই দলকে টপকেই এই পর্যায়ে এসেছে তারুণ্য নির্ভর দলটা। ডিফেন্সে ডি লাইট আর ভার্জিল ভ্যান ডাইক। মাঝমাঠে ডি ইয়ং, উইনালডম আর ফ্রন্টে ডি পেয়-বাবেল। ডাচরা তাই আত্মবিশ্বাসী।

নেদারল্যান্ডসের ডিফেন্ডার ভার্জিল ভ্যান ডাইক বলেন, ‘আমাদের সামনে একটা ট্রফি জেতার সুযোগ। পুরো মৌসুম খেলা শেষে সবাই এখানে এসেছে। টুক-টাক ইনজুরি থাকতেই পারে। তবে, আমরা আত্মবিশ্বাসী।‘

ম্যাচটা পর্তুগালের নিরপক্ষে ভেন্যুতে। দুই দলই সমানে সমান, কে জেতে, কে হারে, বলা মুশকিল বেশ। ম্যাচ শেষেই জানা যাবে ফাইনালে পর্তুগালের সঙ্গী হচ্ছে কে।