DBC News
কঠোর হচ্ছে বিমানবন্দরে নিরাপত্তা: তল্লাশি করা হবে ভিআইপিদেরও

কঠোর হচ্ছে বিমানবন্দরে নিরাপত্তা: তল্লাশি করা হবে ভিআইপিদেরও

ভিআইপিসহ সবাইকেই বিমানবন্দরের নিরাপত্তা তল্লাশি এবং নিয়মের মধ্য দিয়েই যাওয়ার কথা। তারপরও সেখানে ব্যত্যয় ঘটে। শেষ পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রীকে এ বিষয়ে কথা বলতে হয়েছে। আর তাতেই নড়েচড়ে বসেছে কর্তৃপক্ষ। সিভিল এভিয়েশন কর্তৃপক্ষ বলছে, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ পালনে বিমানবন্দরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা এখন আরো কঠোর হচ্ছে। প্রয়োজনে আইন প্রয়োগ করার পরামর্শও দিয়েছেন রাজনৈতিক নেতারা।

ঢাকার হযরত শাহজালালসহ দেশের সব আন্তর্জাতিক ও অভ্যন্তরীণ বিমানবন্দরের নিরাপত্তা জোরদার করতে গেল কয়েক বছর ধরে বেশ তৎপর সিভিল এভিয়েশন কর্তৃপক্ষ। বিমানবন্দরে কড়াকড়ি ব্যবস্থার মধ্যেও বিমান ছিনতাই চেষ্টা, অস্ত্র নিয়ে ধরা পড়া। বিশেষ করে ভিআইপি যাত্রী, তাদের গানম্যান, স্বজন অথবা সফরসঙ্গীরা বিমানবন্দরের নিরাপত্তা তল্লাশিতে প্রায়ই অনীহা প্রকাশ করেন। এ নিয়ে অনাকাঙ্খিত ঘটনাও ঘটছে।

সবশেষ প্রধানমন্ত্রী বিমানবন্দরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে কঠোর নির্দেশ দিয়েছেন।

এ বিষয় নিয়ে কথা বলেছেন সিভিল এভিয়েশনের চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল মো. নাইম হাসান। তিনি জানান, বিড়ম্বনার তথ্য অনেকাংশেই গণমাধ্যমে অপ্রকাশিত থেকে যায়।

আর ভিআইপির সাথে সর্বোচ্চ দু'জন বিমানবন্দরে প্রবেশের অনুমোদন থাকলেও অনেক সময় তা মানা হয়না। বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষকে নানাভাবে হয়রানি করার ঘটনাও ঘটেছে।

এদিকে, বিমানবন্দরে ঘটে যাওয়া অনাকাঙ্খিত ঘটনাগুলোর বেশিরভাগেরই কারণ রাজনৈতিক নেতা এবং তাদের সহযোগীরা। তাই ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, 'বিমানবন্দরের নিয়ম মানতে প্রয়োজনে আইনপ্রয়োগ করতে হবে।'

যুগ্ম সচিব থেকে তার ওপরের সব পদ, বিচারপতি, নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি এবং সরকারের কাছ থেকে স্ট্যাটাস পাওয়া ব্যক্তিরাই ভিআইপির মর্যাদান পান। এছাড়াও অনেকে প্রভাব খাটিয়ে এ তালিকায় নাম অন্তর্ভুক্ত করেছেন।