DBC News
গাছে বেঁধে গৃহবধূ নির্যাতন: গর্ভের সন্তান নষ্ট

গাছে বেঁধে গৃহবধূ নির্যাতন: গর্ভের সন্তান নষ্ট

শেরপুরের নকলায় জমিসংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে ডলি খানম (২২) নামে এক অন্তঃস্বত্ত্বা গৃহবধূর চোখে মুখে মরিচের গুড়া ছিটিয়ে গাছে বেঁধে নির্যাতন করে গর্ভের সন্তান নষ্টের অভিযোগ উঠেছে। গেল সোমবার রাতে নির্যাতনের ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশ হলে তা ভাইরাল হয়ে যায়। এ ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে।

ডলি খানম পৌর শহরের কায়দা এলাকার শফিউল্লাহর স্ত্রী। নির্যাতনের শিকার ডলি খানম অভিযোগ করেন জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে তাকে নির্যাতন করেছে তার ভাসুর ও জা। নির্যাতনে ওই গৃহবধূর গর্ভের সন্তানও নষ্ট হয়েছে বলে অভিযোগ করেন তিনি।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নকলা পৌর শহরের কায়দা গ্রামের মৃত হাতেম আলীর ছেলে মোঃ শফিউল্লাহর সাথে এক খন্ড জায়গা নিয়ে তার বড়ভাই আবু সালেহ (৫২), নেছার উদ্দিন (৪৮) ও সলিম উল্লাহর (৪৪) বিরোধ চলে আসছে। গেল ১০ই মে জমির বর্গাচাষীরা ধান কাটতে গেলে নিজের জমি দাবি করে বাধা দেন শফিউল্লাহ ও তার অন্তঃস্বত্ত্বা স্ত্রী ডলি খানম। এ সময়, শফিউল্লাহর বড় ভাই আবু সালেহ ও ভাইবউ লাখী আক্তার জমির পাশে থাকা ইউক্যালিপটাস বেঁধে নির্যাতন করে। পরে, পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে গুরুতর আহত অবস্থায় ডলি খানমকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠায়। কিন্তু, অবস্থার উন্নতি না হওয়ায় জেলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে পরীক্ষা-নিরীক্ষায় দেখা যায়, নির্যাতনের কারণে ডলি খানমের অকাল গর্ভপাত হয়েছে।

 পুলিশ এ ঘটনায় জড়িত আবু সালেহ ও তার ভাই বউ লাখী আক্তারকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

এ ঘটনায় শফিউল্লাহ ৩রা জুন শেরপুরের আমলী আদালতে আবু সালেহসহ ৫ জনকে স্ব-নামে ও আরও অজ্ঞাতনামা কয়েকজনকে আসামি করে একটি নালিশী মামলা দায়ের করলে জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শরীফুল ইসলাম খান ভিকটিমের এমসি তলব সাপেক্ষে ঘটনার বিষয়ে তদন্তপূর্বক ১০ কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিলের জন্য জামালপুরের পিবিআইয়ের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার প্রতি নির্দেশ প্রদান করেন।

এ ঘটনায় অভিযুক্ত আবু সালেহ’র সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি মুঠোফোনে বলেন, 'আমার বিরুদ্ধে যে অভিযোগ করা হয়েছে তা মিথ্যা ও বানোয়াট। আমি শুধু তাকে বেঁধে রেখে থানায় খবর দিয়েছি। পরে, পুলিশ তাকে উদ্ধার করেছে। হয়রানির জন্য এ মিথ্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে।'

এ ব্যাপারে জামালপুর পিবিআইয়ের দায়িত্বে থাকা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সীমা রাণী সরকার বলেন, 'মামলাটি এখনও হাতে পাইনি। পেলে অবশ্যই দ্রুত তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।'

আরও পড়ুন

ভুল চিকিৎসায় প্রসূতির মৃত্যু; পরিচালক ও ডাক্তার গ্রেপ্তার

ভুল চিকিৎসায় এক প্রসূতির মৃত্যুর ঘটনায় চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুরের একটি বেসরকারি ক্লিনিকের পরিচালক ও ডাক্তারকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। সকালে গোমস্তপুর থানার পি...

গৃহবধূর সহায়তায় ৫ম শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষণ

আশুলিয়ায় প্রতিবেশী এক গৃহবধূর সহায়তায় ধর্ষণের শিকার হয়েছে ৫ম শ্রেণীর স্কুল ছাত্রী। এ ঘটনায় অভিযুক্ত গৃহবধূ রাবেয়া বেগমকে আটক করলেও ধর্ষক পলাতক রয়েছে।বুধবার দুপু...

ভুল চিকিৎসায় প্রসূতির মৃত্যু; পরিচালক ও ডাক্তার গ্রেপ্তার

ভুল চিকিৎসায় এক প্রসূতির মৃত্যুর ঘটনায় চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুরের একটি বেসরকারি ক্লিনিকের পরিচালক ও ডাক্তারকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। সকালে গোমস্তপুর থানার পি...

কুষ্টিয়ায় বাল্যবিয়ের আয়োজন; কিশোরীর ভাই ও বাবার কারাদণ্ড

কুষ্টিয়ায় বাল্যবিয়ের আয়োজন করায় ঐ কিশোরীর ভাই ও বাবার কারাদণ্ড হয়েছে। এ ঘটনায় দাওয়াতে আসা ৪ জন ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানকে ৪০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। বর ও বরের...