DBC News
চীনা ঋণের ফাঁদ এড়ানোর পরামর্শ

চীনা ঋণের ফাঁদ এড়ানোর পরামর্শ

চীনের বেল্ট অ্যান্ড রোড কার্যক্রম বাস্তবায়ন হলে বাংলাদেশের লাভবান হওয়ার সুযোগ আছে। তবে, চীনা ঋণের ফাঁদ এড়াতে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছে বেসরকারি গবেষণা সংস্থা-সিপিডি। রাজধানীর একটি হোটেলে আয়োজিত সম্মেলনে চীনের বেল্ট অ্যান্ড রোড ইনিশিয়েটিভকে এমন মূল্যায়ন করেছে সংস্থাটি।

সড়ক, রেল ও নৌপথে যুক্ত হবে এশিয়া ও ইউরোপ মহাদেশের বিশ্বের ৭২টি দেশ। এরই মধ্যে, এ উদ্যোগের অংশীদার হয়েছে ৬৮টি দেশ। ২০১২ সালে এ মহাপরিকল্পনা হাতে নেয় চীন। বেইজিংয়ের মতে, এ উদ্যোগ সফল হলে, এশিয়ার দেশগুলোর অর্থনীতি সবল হবে, সুফল পাবে বিশ্ব অর্থনীতি। কিন্তু, অনেকেই একে দেখছেন বিশ্ব রাজনীতি ও অর্থনীতিতে চীনের নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠার কৌশল হিসেবে।

এ নিয়ে গবেষণা সংস্থা সিপিডির সম্মেলনেও একই মতামত দেন আলোচকরা।

ভারতের রিসার্চ অ্যান্ড ইনফরমেশন সিস্টেম ফর ডেভেলপিং কান্ট্রিস এর মহাপরিচালক ড. শচীন চতুর্ভেদী তার বক্তব্যে বলেন, 'অনেক দেশই চীনের অর্থায়নে করা প্রকল্পের স্বচ্ছতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে। তাদের অভিযোগ এসব প্রকল্পে পরিবেশগত দিক মোটেও বিবেচনা করা হয়নি। এমনকি, স্থানীয় শ্রমিকদেরও নিয়োগ দেয়া হয়না।'

কিন্তু, চীনের ইউনান অ্যাকাডেমি ফর সোশ্যাল সাইন্সেস এর ইন্সটিটিউট ফর বাংলাদেশ স্টাডিজের অধ্যাপক চেঙ মিন বলেন, 'এদেশে চীনের বিনিয়োগ প্রতি বছরই বাড়ছে এবং বেল্ট অ্যান্ড রোড ইনিশিয়েটিভ কার্যকর হলে বিশ্বের অনেক গুরুত্বপূর্ণ দেশের সঙ্গে বাংলাদেশের বাণিজ্য যোগাযোগ সহজ হবে।'

বেল্ট অ্যান্ড রোড ইনিশিয়েটিভের আওতায় বিভিন্ন দেশের উন্নয়ন প্রকল্পে ১৯০ বিলিয়ন ডলার ঋণ দিয়েছে চীনের এক্সিম ও ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক। ঋণ দিতে প্রস্তুত আরও অন্তত ১০টি ব্যাংক। অথচ এরইমধ্যে চড়া সুদের চীনা ঋণ শোধ না করতে না পেরে হাম্বানটোটা বন্দরের নিয়ন্ত্রণ হারিয়েছে শ্রীলঙ্কা। প্রায় একই অবস্থা পাকিস্তানের। তাই চীনা ফাঁদে পা না গলানোর পরামর্শ সিপিডি চেয়ারম্যানের।

সিপিডি চেয়ারম্যান ড. রেহমান সোবহান চেয়ারম্যান বলেন, '৩০ বিলিয়ন বা ৪০ বিলিয়ন ডলার ঋণ দেয়ার কথা হচ্ছে। কিন্তু, এটা দীর্ঘমেয়াদে হলেও তো ফেরত দিতে হবে তো। ওরা তো আমাদের এটা উপহার হিসেবে দিচ্ছে না।'

তবে পররাষ্ট্র সচিব মো. শহীদুল হক জানান, নিজেদের স্বার্থ আর ভূরাজনৈতিক ভারসাম্য রক্ষা করেই এগোচ্ছে বাংলাদেশ। এমনকি, যতক্ষণ পর্যন্ত আমাদের স্বার্থ সুরক্ষিত থাকছে ততক্ষণ পর্যন্ত আমরা এর প্রত্যেকটি উদ্যোগেই অংশীদার হতে চাই।

শিল্পমন্ত্রী নুরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূনও আশা করেন চীনের বেল্ট অ্যান্ড রোড ইনিশিয়েটিভ থেকে উপকৃত হবে সবগুলো দেশ।

আরও পড়ুন

যুবলীগ নেতা খালেদ মাহমুদকে আদালতে নেয়া হচ্ছে

রাজধানীর ফকিরাপুলের ইয়ংমেন্স ক্লাব ক্যাসিনোর মালিক ঢাকা দক্ষিণ যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ মাহমুদকে গুলশান থানা থেকে আদালতে নেয়া হচ্ছে।  বৃহস্পতিবার দু...

বিশ্বের নামকরা ক্যাসিনো

প্রায় দুই হাজার বছর আগে জুয়া খেলার উত্থান। শুরুর দিকে অনিয়ন্ত্রিত জুয়ার আসরের কারণেই ক্যাসিনোর উৎপত্তি। বর্তমানে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে জুয়ার আসরে চলে ক্যাসিন...

বাড়তি ট্যাক্সে দাম কমছে না স্মার্টফোনের

আমদানিতে ট্যাক্স বেশি তাই দেশের বাজারে দাম কমছে না স্মার্টফোনের। আমদানিকারকদের সাথে সুর মিলিয়ে টেলিকম অপারেটররাও বলছে- দাম বেশি হওয়ায় বাড়ছে না ফোরজি হ্যান্ডসেটে...

ডিজিটাল দুর্নীতি নিয়ন্ত্রণ বড় চ্যালেঞ্জ: দুদক চেয়ারম্যান

মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে অবৈধ লেনদেন হচ্ছে কিনা, তা দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) খতিয়ে দেখছে বলে জানিয়েছেন সংস্থাটির চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ। তিনি বলেন, ‘এ...

বিশ্বের নামকরা ক্যাসিনো

প্রায় দুই হাজার বছর আগে জুয়া খেলার উত্থান। শুরুর দিকে অনিয়ন্ত্রিত জুয়ার আসরের কারণেই ক্যাসিনোর উৎপত্তি। বর্তমানে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে জুয়ার আসরে চলে ক্যাসিন...

নিজের ছবিকে বর্ণবাদী স্বীকার করে ক্ষমা চাইলেন কানাডার প্রধানমন্ত্রী

স্কুল জীবনের একটি ছবি গণমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ার পর ক্ষমা চেয়েছেন কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো। তিনি বলেছেন, দেড় যুগ আগে স্কুলে ‘আরব্য রজনী থিমের’...