বাংলাদেশ, জেলার সংবাদ

কুমিল্লায় পিস্তল ঠেকিয়ে খামার থেকে ৩ টি মহিষ ও ৭টি গরু লুট

কুমিল্লা প্রতিনিধি

ডিবিসি নিউজ

মঙ্গলবার ১১ই জুন ২০২৪ ০৮:৪৬:৩৪ অপরাহ্ন
Facebook NewsTwitter NewswhatsappInstagram NewsGoogle NewsYoutube

ফেনীর পর এবার কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে একটি খামারে তিন প্রহরীকে পিস্তল ও দেশীয় অস্ত্র ঠেকিয়ে জিম্মি করে ৩ টি মহিষ ও ৭টি গরু লুট করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

জেলার নাঙ্গলকোট উপজেলার আদ্রা দক্ষিণ ইউপির পুজকরা গ্রামের মায়ের দোয়া ইট ভাটার পাশে গরুর খামারে লুটের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনা মঙ্গলবার (১১ জুন) থানায় একট লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন খামারের মালিক। 

 

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, প্রতিদিনের মতো রবিবার (৯ জুন) রাতে গরুগুলোকে খাবার দিয়ে ঘুমিয়ে যান খামারের দায়িত্বে থাকা ফরিদুল ইসলাম ও রুহুল আমিন।

 

হঠাৎ রাত ২টার দিকে মুখোশ পরা ১০-১৫ জনের একটি গ্রুপ হাতে পিস্তল, চুরি ও হকিস্টিক নিয়ে ইট ভাটার প্রবেশ করে পাহারাদার নুরে আলমকেও বেঁধে ফেলে। পরে খামারের দায়িত্ব থাকা দুই শ্রমিকে ঘুম থেকে ডেকে তুলে পিস্তল ঠেকিয়ে জিম্মি করে হাত পা বেঁধে মুখে  টেপ মেরে দেয়। পরে খামার থেকে একে একে ৩টি  মহিষ সহ ১০ টি গরু পিকআপে তুলে নিয়ে যায় ওই ডাকাতরা। ভোর রাতের দিকে স্থানীয় কামাল ড্রাইভার খামারের পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় শ্রমিকদের এ অবস্থা দেখে খামার ব্যবস্থাপক আনোয়ার হোসাইনকে ফোন করেন। তিনি দ্রুত খামারে এসে তাদের বাঁধন খুলেন। 

 

এ বিষয়ে স্থানীয় আদ্রা দক্ষিণ ইউপির চেয়ারম্যান ইট ভাটা ও খামারের মালিক আবু ইউছুফ বলেন, ‘দীর্ঘদিন ধরে ইট ভাটার পাশে খামার করে গরু ব্যবসা করে আসছেন তার ভাই আনোয়ার। রাতে অস্ত্রেরের মুখে জিম্মি করে প্রায় ২০ লাখ টাকা মূল্যর ৩ টি মহিষ ও ৭টি গরু লুট করে নিয়ে যায় ডাকাতরা। এর মধ্যে তিনটি মহিষ ডাকাতদের তান্ডবের সময় দৌড়ে পালিয়ে যায়। বর্তমানে খামারে মাত্র তিন টি মহিষ রয়েছে। ’

 

এ বিষয়ে নাঙ্গলকোট থানার ওসি দেবাশীষ চৌধুরী বলেন, ‘খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে কাজ করছেন। এ খামারটি কুমিল্লা নোয়াখালী আঞ্চলিক সড়কের পাশে হওয়ায় গরু লুট করে দুর্বৃত্তরা সহজে পালিয়ে গেছে। গরুগুলো উদ্ধারের চেষ্টা করছি।’

 

ডিবিসি/ এসএইচ

আরও পড়ুন