• শনিবার, ১৫ মে ২০২১
  • রাত ১১:১৩

কেন্দ্রের বাইরে স্বাস্থ্যঝুঁকির মধ্যেই অনুষ্ঠিত হলো মেডিক্যাল ভর্তি পরীক্ষা

৩৭টি সরকারি মেডিক্যাল কলেজের ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিলেন ১ লাখ ২২ হাজার ৮৭৪ জন। এক ঘণ্টার পরীক্ষায় কেন্দ্রের ভেতরে স্বাস্থ্যবিধি মানা হলেও বাইরে ছিলো ভিন্নচিত্র। সেখানে স্বাস্থ্যঝুঁকি ছিলো চরম।

দেশের ৩৭টি সরকারি মেডিক্যাল কলেজের  ভর্তি পরীক্ষায় এবছর রেকর্ডসংখ্যক পরীক্ষার্থী- ১ লাখ ২২ হাজার ৮৭৪ জন। শুক্রবার সকাল ১০ থেকে ১১টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হয় পরীক্ষা। 

করোনা সংক্রমণ বাড়ায়, পরীক্ষায় হবে কি না তা নিয়ে শঙ্কায় ছিলেন পরীক্ষার্থীরা। বৃহস্পতিবার রাতে ভর্তি ও উপদেষ্টা কমিটির ভার্চুয়াল বৈঠক হয়। সিদ্বান্ত হয় পরীক্ষা পেছানোর কোন সুযোগ নেই। নির্ধারিত শুক্রবারই হবে পরীক্ষা।

সভা শেষে ডিবিসি নিউজকে এ সিদ্ধান্তের কথা জানান ওভার সাইট কমিটির সভাপতি ডা. মোস্তফা  জালাল মহিউদ্দিন। করোনায় ভর্তি পরীক্ষা কেন নেয়া হচ্ছে তারও কারণ জানান তিনি। তিনি বলেন, আমরা স্বাস্থ্য সুরক্ষা মেনেই পরীক্ষা চলবে। এক বেঞ্চে দুইজন করে বসানো হবে। আমরা পরীক্ষা নিচ্ছি কারণ সামনে যদি পরিস্থিতি আরও খারাপ হয়ে যায় তখন যদি পরীক্ষা না নেয়া হয় তাহলেতো তাদের জীবন থেকে একটা বছর হারিয়ে যাবে।

সকাল ৮টার পরীক্ষা কেন্দ্রের গেট খোলা হয় এবং সকাল সাড়ে নয়টার মধ্যে পরীক্ষার্থীদের আসন গ্রহন করে। সকাল ১০টায় পরীক্ষা শুরু হয় এবং কেন্দ্রের মেইন গেইট বন্ধ করা হয়।

এর আগে, কঠোর স্বাস্থ্যবিধি ছাড়া কোন পরীক্ষার্থী করোনা আক্রান্ত থাকলে তাদের জন্য আলাদা রুমে পরীক্ষা নেয়ার ব্যবস্থা নেয়ার কথাও জানানো হয়। স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ডাক্তার এ এইচ এম এনায়েত হোসেন জানান, যারা করোনা পজিটিভ পরীক্ষার্থী আছেন তাদের জন্য আইসোলেশন রুমে পরীক্ষা নেয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে। এদিকে, পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের তরফ থেকে বেশ কিছু নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। 

এদিকে, পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের তরফ থেকে বেশ কিছু নির্দেশনা দেয়া হয়। 

মহামারী নিয়ন্ত্রণে সরকার অর্ধেক যাত্রী নিয়ে গণপরিবহন চালানোর নির্দেশনা দেয়ায় মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষার সকালে পরিবহন সঙ্কট দেখা দিতে পারে বলে সতর্ক করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশ।
 
এ পরিস্থিতিতে সেদিন সকালে পরীক্ষার্থীদের পর্যাপ্ত সময় হাতে নিয়ে বাসা থেকে বের হতে এবং সকাল ৮টার মধ্যে পরীক্ষা কেন্দ্রে পৌঁছাতে অনুরোধ করা হয় পুলিশের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে।

এ ভর্তি পরীক্ষা স্বচ্ছ ও সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে কয়েকটি নির্দেশনাও দেয়া হয় পুলিশের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে।

>> পরীক্ষার্থীদের মাস্ক পরে পরীক্ষা কেন্দ্রে আসতে হবে।
>> সবক্ষেত্রে যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে, সামাজিক ও শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে।
>> পরীক্ষা কেন্দ্রের প্রবেশদ্বারে সাবান দিয়ে হাত ধুতে হবে অথবা স্যানিটাইজ করতে হবে।
>> কেন্দ্রের আশপাশে গাড়ি রাখা যাবে না।
>> অভিভাবকরা কেন্দ্রের কাছে অবস্থান করতে পারবেন না।
>> ফটোকপিয়ার, কম্পিউটার কম্পোজ ও প্রিন্টিংয়ের দোকান পরীক্ষার আগের দিন রাত ৮টা থেকে পরীক্ষা শেষ না হওয়া পর্যন্ত বন্ধ থাকবে।

ডেস্ক
ডিবিসি নিউজ
প্রকাশিতঃ ২রা এপ্রিল, ২০২১


সর্বশেষ

আরও পড়ুন