• সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯
  • রাত ১২:৪০

উইঘু মুসলমান নির্যাতন: ২৮ চীনা সংগঠন কালো তালিকাভুক্ত

উইঘু মুসলমান নির্যাতন: ২৮ চীনা সংগঠন কালো তালিকাভুক্ত
চীনের জিনজিয়াং প্রদেশে সংখ্যালঘু উইঘুর সম্প্রদায়ের ওপর নির্যাতনে জড়িত থাকার অভিযোগ এনে ২৮টি চীনা সংগঠনকে কালো তালিকাভুক্ত করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

চীনের জিনজিয়াং প্রদেশে সংখ্যালঘু উইঘুর সম্প্রদায়ের ওপর নির্যাতনে জড়িত থাকার অভিযোগ এনে ২৮টি চীনা সংগঠনকে কালো তালিকাভুক্ত করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

এতে ওয়াশিংটনের অনুমোদন ছাড়া যুক্তরাষ্ট্রে কোন কোম্পানি থেকে পণ্য ক্রয় ছাড়া নানা নিষেধাজ্ঞার মধ্যে থাকবে সংগঠনগুলো। যুক্তরাষ্ট্রের এমন সিদ্ধান্তে এখনো কোনো প্রতিক্রিয়া জানায়নি চীন।

মানবাধিকার সংগঠনগুলোর অভিযোগ, বন্দি শিবিরে নিয়ে উইঘুর সম্প্রদায়ের মুসলিমদের ওপর নির্যাতন চালানো হয়। তবে উগ্রবাদ মোকাবেলায় এসব ক্যাম্পে আটকদের নানা দেবে সচেতন করে তোলার চেষ্টা হয় বলে দাবি বেইজিংয়ের।

যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্য দফতরের এক নথিতে বলা হয়, এই সংগঠনগুলো মানবাধিকার লঙ্ঘন করেছে। সোমবার মার্কিন বাণিজ্য দফতর প্রকাশিত নথিতে বলা হয়, এই ২৮টি প্রতিষ্ঠান চীনের নিপীড়নের সঙ্গে জড়িত ছিলো। উইঘুর, কাজাখসহ অন্যান্য মুসলিম সংখ্যালঘুদের ওপর নজরদারি ও নিপীড়নে উন্নত প্রযুক্তি ব্যবহারের এই প্রতিষ্ঠানগুলো সহায়তা করেছিল।

যুক্তরাষ্ট্রের কালোতালিকার মধ্যে বিশ্বের অন্যতম বৃহত্তম নজরদারি সরঞ্জাম প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠানও রয়েছে। রয়েছে জিনজিয়াংয়ের জন নিরাপত্তা অধিদপ্তর। তবে চীনা প্রতিষ্ঠানের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ যুক্তরাষ্ট্রের জন্য এবারই প্রথম নয়। এর আগেও চীনের ওপর বাণিজ্য নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

মানবাধিকার সংগঠনগুলো জানায়, চীন অনেকদিন ধরেই উইঘুরদের ওপর নিপীড়ন চালাচ্ছে এবং তাদেরকে বন্দীশালায় আটকে রাখছে। অন্যদিকে, চীনের দাবি এগুলো উন্মুক্ত প্রশিক্ষণ কেন্দ্র। উগ্রবাদ মোকাবিলায় এই কেন্দ্র পরিচালিত হয়।     

ডেস্ক
ডিবিসি নিউজ
প্রকাশিতঃ ৮ই অক্টোবর, ২০১৯
আপডেটঃ রবিবার, ১৩ই অক্টোবর, ২০১৯ দুপুর ০২:৫২


সর্বশেষ

আরও পড়ুন