• বুধবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৯
  • সকাল ৭:৫৩

জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলার আইন খারিজ করতেই বন্যায় ভাসলো প্রশাসন!

জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলার আইন খারিজ করতেই বন্যায় ভাসলো প্রশাসন!
একি প্রকৃতির প্রতিশোধ?

স্থানীয় প্রশাসনের জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলা বিষয়ক বাজেট নিয়ে চলছিলো বিতর্ক।পরিবেশ বিষয়ক বাজেটে জলবায়ু মোকাবেলার জন্য বরাদ্দ রাখার বিরোধিতা করে সংখ্যাগরিষ্ট সদস্যরা, এর কয়েক মিনিটের মধ্যেই বন্যার পানিতে সয়লাব হয় প্রশাসনিক ভবনটি।

সম্প্রতি ৫০ বছরের মধ্যে সবচেয়ে ভয়াবহ বন্যার কবলে পড়া ভেনিসে ঘটে এমন ঘটনা।  গত মঙ্গলবার বন্যায় আক্রান্ত হয়েছে সড়কের বদলে খাল ব্যবহার করে যাতায়াত ব্যবস্থার জন্য বিখ্যাত এ শহরটি।

শুক্রবার সিএনএন ডট কম এক প্রতিবেদনে জানায়, ইতালির অন্যতম প্রদেশ ভেনেতো’র কাউন্সিল চেম্বার বসে ভেনিসের ফেররো ফিনি প্যালেসে।  গত মঙ্গলবার রাতে সেখানে ২০২০ সালের আঞ্চলিক বাজেট নিয়ে আলোচনা চলছিলো।  এতে সংখ্যাগরিষ্ট দল লিগ, ব্রাদারস অব ইটালি ও ফোরজা ইটালিয়ার সদস্যরা জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় ডিজেলচালিত বাসসমূহ আরো বেশি পরিবেশবান্ধব জ্বালানিচালিত বাস দিয়ে প্রতিস্থাপন করা, এবং প্লাস্টিকের ব্যবহার কমিয়ে আনা বিষয়ক কিছু সংশোধনের বিরোধিতা করে।

সেই আলোচনায় উপস্থিত থাকে ডেমোক্রেটিক পার্টির কাউন্সিলার এবং ভেনেতোর জলবায়ু বিষয়ক কমিটির ভাইস প্রেসিডেন্ট আন্দ্রে জানোনি এক বিস্তারিত ফেইসবুক পোস্টে লিখেন, সংখ্যাগরিষ্টরা সংশোধনের বিরোধিতা করে ভোট দেয়ার কয়েক মিনিটের মধ্যেই কাউন্সিল কক্ষটি পানিতে ভেসে যায়।

পুরো ফেররো ফিনি প্যালেসই ইতিহাসে প্রথমবারের মতো পানিতে ডুবেছে।

নিজের সুবিশাল পোস্টে পানিতে ডুবে থাকা ফেররো ফিনি প্যালেসের বিভিন্ন অংশের ছবি আর ভিডিও শেয়ারও করেন জানোনি।

ভেনেতো আঞ্চলিক কাউন্সিলের মুখপাত্র আলেসান্দ্রো অভিজাক নিশ্চিত করেছেন, বন্যার পানি কাউন্সিল কক্ষে ঢুকে যাওয়ার সময় আঞ্চলিক বাজেট নিয়ে আলোচনা চলছিলো। তবে বাজেটের কোন অংশটি নিয়ে আলোচনা চলছিলো, তা তিনি নিশ্চিত করেননি।

এ পরিস্থিতিতে কাউন্সিলের বুধ ও বৃহস্পতিবারের সভা অন্য স্থানে সরিয়ে নেয়া হয় বলে জানানো হয়েছে কাউন্সিলের ওয়েবসাইটে।

এর আগে গত মঙ্গলবার ভেনিসের মেয়র লুইজি ব্রুগনারো এক ভিডিও টুইট বার্তায় আকস্মিক এই বন্যার জন্য বৈশ্বিক জলবায়ু পরিবর্তনকে দায়ী করেন।  তিনি আরো বলেন, "এ বন্যার ফলে হয়ে যাওয়া ক্ষতিগুলো চিরস্থায়ী চিহ্ন রেখে যাবে।"

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বন্যার কারণে ইতালির ভেনিসে জরুরি অবস্থা জারি করেন ইতালির প্রধানমন্ত্রী জুসেপ্পে কন্তে। ভেনিস নগরীতে জোয়ারের পানি বেড়ে ছয় ফুটের বেশি উচ্চতায় ওঠার পর জরুরি অবস্থা জারি করা হয়।

৫০ বছরের মধ্যে রেকর্ড পরিমাণ জোয়ারের পানিতে ভেনিসে ঐতিহাসিক রাজপ্রাসাদসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।  মানুষ বিদ্যুৎবিচ্ছিন্ন হয়ে দিন কাটাচ্ছে।

এরই মধ্যে নগরীর ৮০ ভাগের বেশি পানিতে তলিয়ে গেছে।  এ পর্যন্ত বন্যায় দু’জনের মৃত্যু হয়েছে।  

ডেস্ক
কাজী শাহরিন হক
ডিবিসি নিউজ
প্রকাশিতঃ ১৫ই নভেম্বর, ২০১৯
আপডেটঃ বুধবার, ১১ই ডিসেম্বর, ২০১৯ রাত ০১:২০


সর্বশেষ

ঘটনাপ্রবাহ বিশ্লেষণঃ

আরও পড়ুন