• সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯
  • রাত ২:০৭

টানা বিক্ষোভে আর্থিক ক্ষতিতে হংকং

টানা বিক্ষোভে আর্থিক ক্ষতিতে হংকং

গত চার মাসের বিক্ষোভে একসময়ের জনপ্রিয় পর্যটন নগরী হংকংয়ে পর্যটকদের আনাগোনা অনেক কমে গেছে, থমকে গেছে অঞ্চলটির অর্থনীতি। পুলিশ ও বিক্ষোভকারীদের সংঘর্ষে রেল যোগাযোগ ব্যবস্থাও প্রায় অচল।

এদিকে, গত কয়েকদিন টানা বন্ধ থাকার পর আজ থেকে আবারও খুলেছে হংকংয়ের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলো।

অক্টোবরের প্রথম সপ্তাহে হংকংয়ের ঐতিহ্যবাহী গোল্ডেন উইকের ছুটিতে সাধারণত পর্যটকদের উপচে পরা ভিড় থাকে।  তবে এবছর পরিস্থিতি সম্পূর্ণ ভিন্ন। অন্যান্য বছরের তুলনায় এবার পর্যটকের সংখ্যা ছিল ৫০ শতাংশ কম। এতে বেশ বড়সর ধাক্কা খেয়েছে হংকংয়ের পর্যটন প্রধান অর্থনীতি।

পর্যটক কমায় কমেছে বিক্রিবাট্টাও।  মঙ্গলবার সংবাদ সম্মেলন করে হংকংয়ের প্রধান নির্বাহী ক্যারি লাম জানান, শুধু অক্টোবরের প্রথম সপ্তাহেই পর্যটনশিল্পের সঙ্গে জড়িত প্রায় ছয় লাখ মানুষ ক্ষতির মুখে পড়েন। গত বছর জুলাইয়ে হংকংয়ের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলোর মোট বিক্রি ছিল ৩৪ দশমিক চার বিলিয়ন মার্কিন ডলার, তা এবছরের জুলাইয়ে ১১ দশমিক চার বিলিয়ন ডলারে নেমে আসে বলে জানায় হংকংয়ের পরিসংখ্যান বিভাগ।

গেল আগস্টে হংকংয়ের হোটেল বুকিংয়ের হার প্রায় অর্ধেকে নেমেছে, ঘরবাড়ির মূল্য কমেছে ৭০ শতাংশ।  এছাড়া হংকং ওপেন ও একটি আন্তর্জাতিক সাইক্লিং ইভেন্টসহ বেশ কিছু আয়োজন বাতিল করে হংকংয়ের পর্যটন বোর্ড।

পর্যটকদের অনেকেই এখন ভ্রমণের জন্য হংকংয়ের বিকল্প হিসেবে বেছে নিচ্ছেন সিঙ্গাপুরকে। এর কারণ হিসেবে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে হংকংয়ের ইমেজ ভীষণভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়াকে দায়ী করেন অঞ্চলটির অর্থ বিভাগের প্রধান। এদিকে, পর্যটকদের আনাগোনা কমে যাওয়ায় হংকংয়ে ফ্লাইটের সংখ্যাও কমিয়ে এনেছে অনেক এয়ারলাইন্স। 

ডেস্ক
ডিবিসি নিউজ
প্রকাশিতঃ ৮ই অক্টোবর, ২০১৯
আপডেটঃ রবিবার, ১৩ই অক্টোবর, ২০১৯ সকাল ১০:১৬


সর্বশেষ

আরও পড়ুন