• বুধবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৯
  • সকাল ৭:৫৩

নতুন সড়ক পরিবহণ আইন বাস্তবায়নে সড়কে ভ্রাম্যমাণ আদালত

নতুন সড়ক পরিবহণ আইন বাস্তবায়নে সড়কে ভ্রাম্যমাণ আদালত
১ নভেম্বর নতুন সড়ক পরিবহন আইন কার্যকর করে সরকার। তবে নতুন আইনে মামলা ও শাস্তি দেয়ার কার্যক্রম মৌখিকভাবে দুই সপ্তাহ পিছিয়ে দেন সড়কমন্ত্রী। গত বৃহস্পতিবার সেই সময়সীমা শেষ হয়।

নতুন সড়ক পরিবহণ আইন কার্যকরে রাজধানীতে মাঠে রয়েছে সাতটি ভ্রাম্যমাণ আদালত। তবে নতুন আইনের বিষয়ে এখনও জানেন না অনেক যাত্রী ও পথচারী। আইন মানতে চালকদেরও রয়েছে অনীহা।গতকাল বিআরটিএর ভ্রাম্যমাণ আদালত ৮৮টি মামলায় জরিমানা করেছে ১ লাখ ২১ হাজার টাকা। এদিকে, গাড়ির কাগজপত্র ঠিক করতে ভিড় বিআরটিএ কার্যালয়গুলোতে।

নতুন সড়ক পরিবহন আইন বাস্তবায়নে সরকার কঠোর পদক্ষেপ নিলেও সড়কে এখনও ফেরেনি শৃঙ্খলা। এরই মধ্যে নতুন আইন কার্যকরের বিরুদ্ধে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে ধর্মঘট শুরু করেছে পরিবহন চালক ও শ্রমিকরা। রাজধানীতেও গণপরিবহণের সংখ্যা সীমিত। 

এদিকে, চালকরা গাড়ির বিভিন্ন কাগজপত্র হালনাগাদ করতে বিআরটিএ কার্যালয়ে ভিড় করছেন। তবে নতুন আইনটি মানতে নারাজ তাদের অনেকেই।

মোটরসাইকেল চালক-আরোহীরা হেলমেট ব্যবহারের পাশাপাশি নতুন আইন কিছুটা মেনে চললেও গণপরিবহণে শৃঙ্খলা এখনো ফেরেনি। যত্রতত্র চলছে ফিটনেসবিহীন বাস। এছাড়া, পথচারী পারাপারের চিত্র খুব একটা বদলায়নি। তবে শৃঙ্খলা ফেরাতে সড়কে ছিল রিআরটিএর ৭টি ভ্রাম্যমাণ আদালত।

আনুষ্ঠানিক ঘোষণা না থাকায় ট্রাফিক পুলিশের পক্ষ থেকে নতুন আইনে কোনো পদক্ষেপ নেয়া না হলেও চলছে জনসচেতনতামূলক কার্যক্রম।

এদিকে, বিভিন্ন জেলায় বাস ধর্মঘটের পর নানা অসঙ্গতির অভিযোগ তুলে  সড়ক পরিবহন আইনের ৯ দফা সংশোধন দাবি করে অনির্দিষ্টকালের জন্য সারা দেশে ধর্মঘট ডেকেছে বাংলাদেশ ট্রাক-কার্ভাডভ্যান পণ্য পরিবহন মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদ। 

তেজগাঁওয়ে সংবাদ সম্মেলনে ট্রাক মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদের আহ্বায়ক মো. রুস্তম আলী খান বলেন, সড়ক পরিবহন আইন স্থগিত করে মালিক শ্রমিকদের আয়ের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে জরিমানার বিধান ও দণ্ড উল্লেখ করে একটি ‘যুগোপযোগী বাস্তবসম্মত ও বিজ্ঞান ভিত্তিক’ সঠিক আইন প্রণয়ন করতে হবে।ট্রাক ধর্মঘট শুরু হলে পণ্য পরিবহন বাধাগ্রস্ত হয়ে নিত্যপণ্যের দাম বেড়ে যেতে পারে।

ট্রাক মালিক-শ্রমিকরা সড়ক পরিবহন আইন প্রত্যাখ্যান করছে কি না- এ প্রশ্নে রুস্তম বলেন,  আইনের সব ধারা নিয়ে আমাদের আপত্তি নেই। কিছু বিষয় নিয়ে আমরা বিভিন্ন সময় দাবি জানিয়েছি। কিন্তু সরকার আশ্বস্ত করলেও পরে সেগুলো বাস্তবায়ন করেনি। এ কারণেই কর্মসূচি।

ডেস্ক
ইসতিয়াক হোসেন
ডিবিসি নিউজ
প্রকাশিতঃ ১৯শে নভেম্বর, ২০১৯
আপডেটঃ মঙ্গলবার, ১০ই ডিসেম্বর, ২০১৯ সকাল ০৯:৫৬


সর্বশেষ

ঘটনাপ্রবাহ বিশ্লেষণঃ

আরও পড়ুন