• বুধবার, ০৩ মার্চ ২০২১
  • সকাল ৯:২৪

পাকিস্তানী ছাত্রীদের জন্য মালালার নামে বিশেষ বৃত্তি দেবে আমেরিকা

পাকিস্তানী ছাত্রীদের জন্য মালালার নামে বিশেষ বৃত্তি দেবে আমেরিকা
মালালা ইউসুফজাই নিজ ভূমিতে মাথায় গুলি খেয়েছেন। পাকিস্তানের এই কন্য নিজ দেশে সম্মান না পেলেও নোবেলও জিতেছেন। এবার তার নামে চালু হতে যাচ্ছে বৃত্তি। এবারও বিদেশের মাটিতে। ডন জানায়।
মানচিত্র

মার্কিন সিনেটে একটি বিল পাস হয়েছে, মালালার নামে একটি বৃত্তি চালু হবে। পাকিস্তানের ছাত্রীরা সেই বৃত্তি পাওয়ার সুযোগ পাবে। ডনের খবরে বলা হয়েছে, ইউএসএইডের অর্থায়নে এই মামালা বৃত্তি ৫০ শতাংশ পাবে পাকিস্তানের শিক্ষার্থীরা। এই ৫০ শতাংশের নাম ‘মালালা ইউসুফজাই স্কলারশিপ’।

যুক্তরাষ্ট্রের ইউএসএআইডির একটি বৃত্তি আছে। এ বৃত্তির আওতায় মেধা ও আর্থিক ক্ষমতার ভিত্তিতে ‘কৃষি বা ম্যানেজমেন্ট’ শাখার পাকিস্তানি ছাত্র-ছাত্রীদের বৃত্তি দেওয়া হয়। গত বছর পর্যন্ত ১ হাজার ৮০৭টি বৃত্তির মধ্যে ২৫ শতাংশ পেয়েছিল ছাত্রীরা।

মার্কিন সিনেটর এই বিলের কারণে প্রচলিত বৃত্তি বেড়ে ৫০ শতাংশে দাঁড়াবে। এগুলো পাবেন শুধু পাকিস্তানের পিছিয়ে পড়া মেধাবী ছাত্রীরা।

গেল বছরের মার্চে মার্কিন সিনেটে এই বিল পাস হয়। এ বছরের প্রথম দিনে পাকিস্তানের ছাত্রীদের জন্য বৃত্তি বাড়াতে তা সংশোধন করা হয়। এখন বিলটি প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে পাঠানো হয়েছে। ট্রাম্প সই করলেই এটি আইনে পরিনত হবে।

জাতিসংঘ ২০১৩ সালের ১২ জুলাইকে ‘মালালা ডে’ হিসেবে ঘোষণা দেয়। এরপর থেকে থেকে প্রতিবছর ১২ জুলাই দিনটি পালিত হয়ে আসছে।

পাকিস্তানে নারীদের শিক্ষার জন্য মালালা লড়াই করছিলেন। নিজেই পড়াশোনা করে জীবনে এগিয়ে যাওয়ার পাশাপাশি চেয়েছিলেন অন্যদেরও এগিয়ে নিতে। ২০১২ সালের ৯ই অক্টোবর স্কুল থেকে বাড়ি ফেরার পথে আক্রান্ত হন মালালা। যে বাসে করে তিনি বাড়ি ফিরছিলেন, সেই বাসে উঠে বন্দুকধারীরা গুলি করে। মাথায় গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পাকিস্তানের এক হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাকে। অবস্থার অবনতি হলে তাকে নিয়ে যাওয়া হয় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে। পাকিস্তানে মালালার জীবন ঝুঁকির মধ্য পড়তে পারে ভেবে মালালার বাবাকে যুক্তরাষ্ট্রের পাকিস্তান কনস্যুলেটের শিক্ষা বিভাগে নিযুক্ত করা হয়, সেই থেকে মালালা যুক্তরাষ্ট্রেই আছেন।

ডেস্ক
ডিবিসি নিউজ
প্রকাশিতঃ ৯ই জানুয়ারী, ২০২১
আপডেটঃ বুধবার, ৩রা মার্চ, ২০২১ দুপুর ০১:২৭


সর্বশেষ

সংবাদ সম্প্রসারন

আরও পড়ুন