• বুধবার, ২০ জানুয়ারি ২০২১
  • সকাল ৯:৩১

'পাকিস্তানে রাষ্ট্রের ভেতরে রাষ্ট্র রয়েছে'

'পাকিস্তানে রাষ্ট্রের ভেতরে রাষ্ট্র রয়েছে'
পাকিস্তান মুসলিম লীগের সহসভাপতি মরিয়ম নওয়াজ বলেছেন, পাকিস্তানে যে রাষ্ট্রের ভেতরে রাষ্ট্র রয়েছে সেটি আবারও প্রমাণিত হয়েছে, করাচির ঘটনা সেটিই প্রমাণ করে।  

করাচির হোটেলের দরজা ভেঙে স্বামী মোহাম্মদ সফদারকে গ্রেফতারের প্রসঙ্গ টেনে শুক্রবার মরিয়ম নওয়াজ এসব কথা বলেন।  খবর ডনের।

মরিয়ম বলেন, করাচির ঘটনাই প্রমাণ দেয় সরকার কে চালাচ্ছে।  ইমরান খান দেশ চালাচ্ছেন না।  তিনি দখলদারদের ক্রীড়নক হিসেবে কাজ করছেন।  করাচির ঘটনায় তার কোনো বক্তব্য নেই।

বাবা নওয়াজ শরীফের বক্তৃতা উদ্ধৃত করে তিনি বলেন, পাকিস্তানে রাষ্ট্রের ভেতরে রাষ্ট্র এটি আবারও প্রমাণিত হয়েছে। ইমরান খানের কোনো ক্ষমতা নেই সরকারে।

প্রসঙ্গত, সোমবার করাচির হোটেল কক্ষের দরজা ভেঙে মরিয়মের স্বামীকে গ্রেফতার করা হয়।

পাকিস্তান মুসলিম লীগের সহসভাপতি মরিয়ম নওয়াজ ইমরান খানবিরোধী জ্বালাময়ী বক্তব্য দেয়ার একদিন পরই তার স্বামীকে গ্রেফতার করে দেশটির পুলিশ।

সোমবার সকালে মরিয়ম নওয়াজ টুইট করে তার স্বামীকে গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেন। টুইটে মরিয়ম লেখেন– করাচির একটি হোটেলে তারা অবস্থান করছিলেন। সোমবার ভোরে হোটেল কক্ষের দরজা ভেঙে পুলিশ জোর করে তাদের কক্ষে প্রবেশ করে। এ সময় মরিয়ম ঘুমন্ত অবস্থায় ছিলেন। এর পর পুলিশ তার স্বামীকে গ্রেফতার করে নিয়ে যায়।

রবিবার পাকিস্তানের বিরোধী দলগুলোর ইমরানবিরোধী এক বিক্ষোভে যোগ দেন মরিয়ম নওয়াজ। ওই বিক্ষোভে স্লোগান দেন ক্যাপ্টেন সফদার। বিক্ষোভটি হয় একটি সমাধিতে। পুলিশের অভিযোগ, ওই স্থানে বিক্ষোভ করে সমাধির পবিত্রতা নষ্ট করা হয়েছে। এ কারণে মরিয়ম, সফদারসহ ২০০ জনের বিরুদ্ধে প্রাথমিক তদন্ত প্রতিবেদন দেয় পুলিশ। এ ঘটনায় পুলিশ সফদারকে গ্রেফতার করেছে।

ডেস্ক
ডিবিসি নিউজ
প্রকাশিতঃ ২৩শে অক্টোবর, ২০২০
আপডেটঃ বৃহঃস্পতিবার, ১৪ই জানুয়ারী, ২০২১ রাত ০২:৪৭


সর্বশেষ

আরও পড়ুন