• শনিবার, ১১ জুলাই ২০২০
  • সকাল ৫:৩৩

পানিতে চুবিয়ে শিশু হত্যা, গৃহপরিচারিকা আটক

পানিতে চুবিয়ে শিশু হত্যা, গৃহপরিচারিকা আটক
হাত বেঁধে পানিতে চুবিয়ে পাঁচ বছর বয়সী শিশুকে হত্যার দায়ে গৃহপরিচারিকা আটক।

চাঁদপুরের শাহরাস্তিতে হাত বেঁধে পানিতে চুবিয়ে শিশু জান্নাতুল মাওয়াকে (৫) হত্যার দায়ে গৃহপরিচারিকাকে আটক করেছে পুলিশ। শনিবার (৬ জুন) উপজেলার টামটা উত্তর ইউনিয়নের বলশীদ গ্রামের যুগীনগর তালুকদার বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, বলশীদ গ্রামের তালুকদার বাড়ির মৃত শামসুল হকের মেয়ে ফাতেমা বেগম (২৫) একই বাড়ির মৃত খোরশেদ আলমের মেয়ে বিধবা কাজল রেখার ঘরে গৃহপরিচারিকার কাজ করতো। ফাতেমা কয়েক মাস আগে কাজ থেকে অব্যহতি নিয়ে ঘটনার দিন সকালে আবারও কাজল রেখার ঘরে আসে।

শনিবার সকালে গৃহপরিচারিকা ফাতেমা, কাজল রেখার শিশুকন্যা জান্নাতুল মাওয়াকে তার পুত্র আরাফাতকে (৭) খুঁজে আনতে বলে। শিশু মাওয়া আরাফাতকে খুঁজে না আনায় ফাতেমা ক্ষুব্ধ হয়ে ওড়না দিয়ে জান্নাতুল মাওয়ার দুই হাত বেঁধে ঘরের পার্শ্ববর্তী গর্তে চুবিয়ে মেরে ফেলে।

পরিবারের লোকজন মাওয়াকে না পেয়ে খোঁজাখুঁজি শুরু করে। পরবর্তীতে শিশু আরাফাত তার মা মাওয়াকে পানিতে ডুবিয়ে হত্যা করেছে বলে লোকজনকে বলে দেয়। পরে আরাফাতের দেখানো গর্তের পানিতে শিশু মাওয়ার মরদেহ উদ্ধার করে করে শাহরাস্তি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে।

এ ঘটনায় স্থানীয়রা ফাতেমাকে আটক করে থানায় খবর দিলে ওসি (তদন্ত) মো. শহীদুল ইসলাম তাকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

শাহরাস্তি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শাহ আলম জানান, শিশু মাওয়াকে হত্যার ঘটনায় অভিযুক্ত ফাতেমাকে আটক কর হয়েছে। এ ঘটনায় নিহত জান্নাতুল মাওয়ার মা কাজল রেখা বিকেলে বাদী হয়ে হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। জান্নাতুল মাওয়ার মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য চাঁদপুর মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

ডেস্ক
চাঁদপুর প্রতিনিধি
ডিবিসি নিউজ
প্রকাশিতঃ ৭ই জুন, ২০২০
আপডেটঃ বৃহঃস্পতিবার, ৯ই জুলাই, ২০২০ সন্ধ্যা ০৭:৩৪


সর্বশেষ

আরও পড়ুন