• রবিবার, ১৬ মে ২০২১
  • রাত ১২:২৯

'পাহাড়ি নারীরা এখনো রয়েছে অনিরাপদে'

'পাহাড়ি নারীরা এখনো রয়েছে অনিরাপদে'
পার্বত্য শান্তি চুক্তি আজ ২৩ বছরেও পরিপূর্ণভাবে বাস্তবায়ন না হওয়ায় পাহাড়ের নারীরা আজও নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে, বলে মন্তব্য করেছেন আঞ্চলিক পরিষদের চেয়ারম্যান ও পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির সভাপতি জ্যতিরিন্দ্র বোধিপ্রিয় লারমা ওরফে সন্তু লারমা।

সোমবার (৮ মার্চ) আন্তর্জাতিক নারী দিবস এবং হিল উইমেন্স ফেডারেশন’ এর ৩৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি। পার্বত্য চট্টগ্রাম মহিলা সমিতি ও হিল উইমেন্স ফেডারেশন এর যৌথ উদ্যোগে পার্বত্য চট্টগ্রামের রাঙ্গামাটি জেলা সদরে জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে সকাল ১০টায় এ আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

মহিলা সমিতির রাঙ্গামাটি জেলা কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক রিতা চাকমার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিতব্য এই আলোচনা সভায় অতিথি হিসেবে টিআইবি’র ট্রাস্টি অ্যাডভোকেট সুষ্মিতা চাকমা, অবসরপ্রাপ্ত উপসচিব প্রকৃতি রঞ্জন চাকমা, এম এন লারমা মেমোরিয়াল ফাউন্ডেশন এর সভাপতি বিজয় কেতন চাকমা, পার্বত্য চট্টগ্রাম যুব সমিতির রাঙ্গামাটি জেলা কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক নান্টু ত্রিপুরা, হিল উইমেন্স ফেডারেশনের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আশিকা চাকমা, পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ী ছাত্র পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক নিপন ত্রিপুরা, হিল উইমেন্স ফেডারেশনের সভাপতি রিনা চাকমা উপস্থিত ছিলেন।

এসময় পার্বত্য এলাকায় নারীর প্রতি সহিংসতা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে উল্লেখ করে বক্তারা বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামের অনিশ্চিত ও নাজুক পরিস্থিতিতে জুম্ম নারীর সমঅধিকার ও সমমর্যাদা যেমনি প্রতিনিয়ত ভূলুন্ঠিত হয়ে চলেছে, তেমনি তাদের নিরাপত্তাহীন জীবন অতিবাহিত করতে হচ্ছে। সর্বোপরি জুম্ম নারীর জাতীয় অস্তিত্ব আজ চরম হুমকির সম্মুখীন হয়েছে। পার্বত্য চুক্তি স্বাক্ষরের পরেও বিশেষত পাহাড়ি নারীরা যৌন নিপীড়ন ও সহিংসতার স্বীকার হয়েছে। গভীর উদ্বেগের বিষয় হচ্ছে, এসব অপরাধের যথাযথ বিচার হয়নি এবং দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি প্রদান করা হয়নি।

ডেস্ক
রাঙামাটি প্রতিনিধি
ডিবিসি নিউজ
প্রকাশিতঃ ৮ই মার্চ, ২০২১


সর্বশেষ

আরও পড়ুন