• শুক্রবার, ১৪ মে ২০২১
  • সকাল ৭:১৭

পুলিশের এক ব্যতিক্রমী দোকান

পুলিশের এক ব্যতিক্রমী দোকান
চট্টগ্রামের ডাবলমুরিং থানা পুলিশের উদ্যোগে নগরের নিম্ন আয়ের মানুষের জন্য চালু হয়েছে ইফতার অ্যান্ড সেহেরি শপ। যা থেকে সেহেরি বা ইফতার কিনলেও দিতে হয় না কোন টাকা। থানার পুলিশ কর্মকতাদের বেতনের একটা অংশ দিয়ে শুরু করা দোকানটির কার্যক্রম চলবে পুরো রমজান মাস।

করোনার কঠোর বিধিনিষেধে বিপাকে নিম্নআয়ের মানুষ। এছাড়া হাসপাতাল ভর্তি রোগী। নিম্নআয়ের মানুষ ছাড়াও হাসপাতালে থাকা স্বজনরাও সেহেরি ও ইফতার আনা বা কেনা নিয়ে আছেন ভোগান্তিতে। এসব মানুষের কথা চিন্তা করে নগরীর ডবলমুরিং থানার উদ্যোগে চালু করা হয়েছে 'ফ্রি ইফতার অ্যান্ড সেহেরি শপ'।

স্থানীয়রা বলেন, এখানে ইফতারের ব্যবস্থা করায় অনেক ভালো হয়েছে। যারা রোগী নিয়ে এখানে এসেছে তাদের জন্য সবচেয়ে বেশি উপকার হচ্ছে। পুলিশের এমন উদ্যোগকে তারা সাধুবাদও জানায়।

প্রতিদিন ৩শ' মানুষের ইফতার ও সেহরির ব্যবস্থা করা হচ্ছে। প্রয়োজনে আরো বাড়ানো হবে উল্লেখ করে নগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ কমিশনার (পশ্চিম) পলাশ কান্তি নাথ বলেন, 'পুরো রমজান মাস ধরেই এ ব্যবস্থা রাখা হবে। আশা করছি, আগামীতে আরো বৃহৎ আকারে এ রকম আযোজন করতে পারবো।'

ডবলমুরিং থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ মহসিন বলেন, 'ডবলমুরিং থানার অফিসারদের বেতনের একটা অংশ থেকে আমরা এই কার্যক্রমটা শুরু করেছি। এই মহামারি পরিস্থিতিতে হাসপাতালে যে সব মানুষ আসে তাদের আত্বীয় স্বজন এবং দুঃস্থ মানুষের জন্য আমাদের এই প্রচেষ্টা। সমাজের কোন বিত্তশালী মানুষ যদি আমাদের সঙ্গে অংশগ্রহণ করতে চায় তাহলে তাদেরকেও আমরা আহ্বান জানাবো।'

মহামারির দুঃসময়ে পুলিশের এমন উদ্যোগকে প্রশংসনীয় বলছেন নগরবাসী।

ডেস্ক
ডিবিসি নিউজ
প্রকাশিতঃ ১৬ই এপ্রিল, ২০২১


সর্বশেষ

আরও পড়ুন