• শুক্রবার, ১৪ মে ২০২১
  • সকাল ৭:০৭

বন্ধুর সঙ্গে দেখা করতে গিয়ে দলবদ্ধ ধর্ষণের শিকার তরুণী

নওগাঁর বদলগাছীতে বন্ধুর সঙ্গে দেখা করতে গিয়ে দলবদ্ধ ধর্ষণের শিকার হয়েছেন এক কলেজছাত্রী।

এ ঘটনায় অভিযুক্ত বন্ধু ও তার খালাতো ভাইয়ের নাম মামলায় অন্তর্ভূক্ত করতে চাইলেও তাদের নাম নেয়নি পুলিশ।

গত ১৮ই মার্চ নওগাঁর বদলগাছীতে বন্ধু আব্দুল আলিমের সঙ্গে দেখা করতে যান কলেজছাত্রী। বিয়ের মিথ্যা প্রলোভনে খালাতো ভাইয়ের বাড়িতে নিয়ে তরুণীকে ধর্ষণ করেন আলিম। পরে গভীর রাতে ওই বাড়ি থেকে বের করে দেয়া হয় ওই তরুণীকে। সেখান থেকে বের হওয়ার পর ওই তরুণীকে তুলে নিয়ে গিয়ে দলবেধে ধর্ষণ করে কয়েকজন যুবক।

বন্ধু ও তার খালাতো ভাইয়ের যোগসাজশেই ধর্ষণের শিকার হন তিনি উল্লেখ করে ভুক্তভোগী ছাত্রী বলেন, 'বিয়ের লোভ দেখিয়ে আমাকে নিয়ে যায়। এক পর্যায় ওই ছেলের খালাতো ভাই আমাকে ওদের বাসার জানালা দিয়ে বের করে দিলে কিছুক্ষণ পরেই সবাই মিলে আমার হাত, মুখ বেধে রাখে। এ বিষয়ে থানায় মামলা করতে গেলেও তারা আমার কথা শোনেনি।'

ভুক্তভোগী ছাত্রীর বাবা-মা বলেন, যে ছেলে অভিযুক্ত তার বিরুদ্ধে থানা মামলা নেয়নি। এমনকি বাড়িওয়ালার বিরুদ্ধেও মামলা নেয়নি। এ ঘটনার সাথে জড়িত সকলের শাস্তি চাই।

অভিযুক্ত আলিমের খালাতো ভাই ফজলু হোসেন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, স্থানীয় যুবকদের আনাগোনা দেখে অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে মেয়েটিকে বাড়ি থেকে বের করে দেই।

নওগাঁর বদলগাছী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা চৌধুরী জোবায়ের আহাম্মদ বলেন, 'ভুক্তভোগীর বয়ানের ভিত্তিতেই মামলার এজাহার গ্রহণ করা হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে জড়িতদের আইনের আওতায় আনা হবে। এ ঘটনায় আরো যদি কেউ জড়িত থাকে তাদেরকেও খুঁজে বের করা হবে।'

এদিকে, ঘটনার পর থেকে পলাতক আলিম।  জড়িতদের দ্রুত গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি স্থানীয়দের। 

ডেস্ক
ডিবিসি নিউজ
প্রকাশিতঃ ২১শে মার্চ, ২০২১


সর্বশেষ

ঘটনাপ্রবাহ বিশ্লেষণঃ

আরও পড়ুন