• শুক্রবার, ১৪ মে ২০২১
  • সকাল ৬:৪৬

বাংলাদেশি অভিবাসী হত্যায় সৌদি নাগরিকের মৃত্যুদণ্ড

বাংলাদেশি অভিবাসী হত্যায় সৌদি নাগরিকের মৃত্যুদণ্ড
হত্যার বদলে হত্যা (মৃত্যুদণ্ড) যে দেশের আইন। যে দেশে অপরাধ করে সহজে ছাড়া পাওয়া যায় না। সেই সৌদি আরবের দাম্মামে বাংলাদেশি অভিবাসী সাগর পাটোয়ারীকে হত্যায় সৌদি নাগরিক উমর আল শাম্মেরীকে মৃত্যুদণ্ডের রায় প্রদান করেছে আদালত। দীর্ঘ পনের বছর পর এই রায় আসলো।

জানা যায়, দাম্মাম শহরের আবু হাদরিয়া সড়কের একটি পেট্রোল পাম্পে বাংলাদেশি অভিবাসী সাগর পাটোয়ারীর সঙ্গে উমর আল শাম্মেরির বাদানুবাদ হয়। এক পর্যায়ে উমর পিস্তল দিয়ে গুলি করলে ঘটনাস্থলেই সাগর নিহত হন। গুলি করার পর উমর ঘটনাস্থল হতে পালিয়ে যান। ২০০৬ সালের জুন মাসে এ হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হয়। দীর্ঘদিন তদন্তের পর স্থানীয় আইন প্রয়োগকারী বাহিনী উমর আল শাম্মেরীকে ২০১৮ সালে শনাক্ত এবং আটক করে বিচারের সম্মুখীন করে।

সাগর পাটোয়ারী হত্যা মামলার শুনানিতে দাম্মাম ক্রিমিনাল কোর্টে মৃতের ওয়ারিশদের পক্ষে অভিযুক্তের মৃত্যুদণ্ডের দাবি জানিয়ে এ পর্যন্ত ১২টি শুনানিতে বাংলাদেশ দূতাবাস প্রতিনিধি অংশগ্রহণ করেন। গত ২৪ মার্চ (বুধবার) অভিযুক্ত সৌদি নাগরিক উমর আল শাম্মেরির বিরুদ্ধে আনীত অভিযাগ প্রমাণিত হওয়ায় কোর্ট আসামিকে শিরচ্ছেদের মাধ্যমে মৃত্যুদণ্ড কার্যকরের রায় প্রদান করে।

নিহত সাগর পাটোয়ারী কুমিল্লা জেলার বরুড়া উপজেলার, নাগিরপাড় গ্রামের হাজী সোনা মিয়ার সন্তান।

এই যুগান্তকারী রায় আবারো প্রমাণ করে অপরাধী যে-ই হোক শাস্তি তাকে পেতে হবে। তবে, ভুক্তভোগী প্রবাসীদের বিচার পেতে দূতাবাসের সহযোগিতার বিকল্প নাই।

ডেস্ক
সাগর চৌধুরী, সৌদি আরব প্রতিনিধি
ডিবিসি নিউজ
প্রকাশিতঃ ২৯শে মার্চ, ২০২১


সর্বশেষ

আরও পড়ুন