• শুক্রবার, ১৪ মে ২০২১
  • সকাল ৭:৩৯

বাংলাদেশের যে কোনো সমস্যায় পাশে থেকেছে ভারত: শেখ হাসিনা

বাংলাদেশের যে কোনো সমস্যায় পাশে থেকেছে ভারত: শেখ হাসিনা
যে কোনো সমস্যায় ভারতকে পাশে পেয়েছে বাংলাদেশ। মুক্তিযুদ্ধে ভারতের অবদান ও আত্মত্যাগ ভোলার নয়।

এভাবেই ভারতের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানালেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বিগত যে-কোনো সময়ের চেয়ে ভারতের সাথে বাংলাদেশের সম্পর্ক নতুন উচ্চতায় উন্নীত হয়েছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি। সন্ধ্যায় জাতীয় প্যারেড স্কয়ারে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও মুজিববর্ষ উদযাপনের সমাপনী অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীর ১০ দিনের আয়োজনে শেষ দিনে সভাপতিত্ব করেন বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা।

বাংলাদেশ-ভারত বন্ধুত্বের ৫০ বছর পূর্তিতে মোদীর সফর ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর আয়োজনে তার  যোগ দান  ছিল বাড়তি তাৎপর্য।

বক্তব্যের শুরুতে করোনা মহামারীর মধ্যেও বাংলাদেশ সফরের জন্য ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেদ্র মোদীকে ধন্যবাদ জানান তিনি। স্মরণ করেন মুক্তিযুদ্ধে ভারতের অবদানকে।

আমি ব্যক্তিগত ভাবে ভারতের জনগণ এবং ভারত সরকারের কাছে কৃতজ্ঞ। যখন আমার পরিবারের সকল সদস্যকে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়। আমরা যখন দিশাহারা হয়ে যাই যে, কোথায় যাব। তখন যুগোস্লাভিয়ার প্রেসিডেন্ট মার্শাল টিটো আমাদেরকে খবর দেন। ভারতের প্রধানমন্ত্রীর সহায়তায় আমরা দিল্লীতে চলে এসেছিলাম। সেখানে আমরা দীর্ঘ দিন ছিলাম।'

প্রধানমন্ত্রী বলেন,  অতিতের যে কোন সময়ের চেয়ে বাংলাদেশ ভারতের সম্পর্ক সব ক্ষেত্রে উন্নতি হয়েছে। তিনি বলেন,'আমরা মোদীজীর নীতি 'প্রতিবেশি সর্বগ্রে এই নীতির প্রশংসা করি। তাছাড়া বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে বিগত কয়েক বছরে কৃষি, শিক্ষা, জ্বালানিসহ বিভিন্ন সহযোগীতা বৃদ্ধি পেয়েছে। ভারত আমাদের অন্যতম উন্নয়ন সহযোগী দেশ।

২০৩১ সালের মধ্যে বাংলাদেশ উচ্চ মধ্যম আয়ের দেশ ও ২০৪১ সালে উন্নত সমৃদ্ধ রাষ্ট্র গড়ে তোলার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন প্রধানমন্ত্রী।

কারো সঙ্গে শত্রুতা নয় সবার সঙ্গে বন্ধুত্বের পররাষ্ট্র নীতির কথা জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন ঐক্যবদ্ধ কাজ কাজ এগিয়ে যাবে বাংলাদেশ।

ডেস্ক
ডিবিসি নিউজ
প্রকাশিতঃ ২৬শে মার্চ, ২০২১


সর্বশেষ

ঘটনাপ্রবাহ বিশ্লেষণঃ

আরও পড়ুন