• শনিবার, ০৪ জুলাই ২০২০
  • রাত ১:৪৮

বাল্যবিবাহ থেকে বাঁচলো কিশোরী, পড়ালেখার করাবে উপজেলা প্রশাসন

বাল্যবিবাহ থেকে বাঁচলো কিশোরী, পড়ালেখার করাবে উপজেলা প্রশাসন
মানিকগঞ্জে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার হস্তক্ষেপে বাল্যবিয়ের হাত থেকে রক্ষা পেয়েছে সপ্তম শ্রেণীর এক ছাত্রী। উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পর্যন্ত তার পড়ালেখার দায়িত্ব নেয়া হয়েছে।

মানিকগঞ্জের সদর উপজেলার নবগ্রাম ইউনিয়নের মাঝিপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। বুধবার দুপুরে সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে বাল্যবিয়েটি বন্ধ করে দেন।

বিয়ের কনে ছিলো আদুরী রাজবংশী (১৩) মাঝিপাড়া গ্রামের রুহিদাস রাজবংশীর মেয়ে।  স্থানীয় নবগ্রাম উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেনীর ছাত্রী সে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আসমাউল হুসনা লিজা জানান, আদুরীর বিয়ের আয়োজন চলছে এমন খবরের ভিত্তিতে ঘটনাস্থলে গিয়ে তার বিয়ে বন্ধ করে দেওয়া হয়। এসময় আদুরীর বাবা রূহিদাস রাজবংশী ও মা নয়নী রাজবংশী ‘১৮ বছরের আগে মেয়েকে বিয়ে দেবে না’ মর্মে মুচলেকা প্রদান করেছে।

তিনি আরো জানান, উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা পর্যন্ত আদুরীর পড়াশোনার দায়িত্ব নেওয়া হয়েছে।

বিয়ে বন্ধ করে দেয়ার পরে স্থানীয়দের সঙ্গে আলোচনায় বাল্যবিয়ের কুফল সম্পর্কে অবহিত করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা। এসময় মেয়েদের প্রাপ্ত বয়স হওয়ার আগে বিয়ে না দিতে গ্রামবাসীকে সতর্ক করেন তিনি।

ডেস্ক
ডিবিসি নিউজ
প্রকাশিতঃ ১১ই ডিসেম্বর, ২০১৯
আপডেটঃ শনিবার, ৪ঠা জুলাই, ২০২০ রাত ০৩:২৫


সর্বশেষ

আরও পড়ুন