• শুক্রবার, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১
  • দুপুর ১২:৪০

বিনাদোষে ৫ বছর জেল খাটা আরমানের ক্ষতিপূরণ পেতে অনিশ্চয়তা

বিনাদোষে ৫ বছর জেল খাটা আরমানের ক্ষতিপূরণ পেতে অনিশ্চয়তা
ঝুলে যাচ্ছে বিনাদোষে পাঁচ বছর জেল খাটা আরমানের ক্ষতিপূরণ পাবার বিষয়টি। তাকে মুক্তির রায়ে ৩০ দিনের মধ্যে ২০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে আইজিপিকে যে নির্দেশ দিয়েছিল আদালত, তা না দিতে আপিল করেছে রাষ্ট্রপক্ষ। 

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী বলছেন, আইজিপি এই ক্ষতিপূরণ দেয়ার কথা নয়। আরমানের আইনজীবী বলছেন, সাংবিধানিক আদালত হিসেবে আইজিপিকে ক্ষতিপূরণ দেয়ার নির্দেশ দেয়ার এখতিয়ার আছে আদালতের।

বিনাদোষে প্রায় পাঁচ বছর কারাগারে থাকার পর, গত বুধবার মুক্তি মেলে আরমানের। পরিবারের মাঝে ফিরে স্বস্তি মিললেও, ক্ষতিপূরণের টাকা পাবেন কি-না তা নিয়ে দুঃশ্চিন্তায়।

গত ৩১শে ডিসেম্বর আরমানকে মুক্তির রায়ে তাকে ২০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে আইজিপিকে নির্দেশ দিয়েছিল উচ্চ আদালত। কিন্তু ক্ষতিপূরণ না দিতে আপিল করেছে রাষ্ট্রপক্ষ।

ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল অমিত দাশ গুপ্ত বলেন, এই কৃতকর্মের দায়ভার এবং ক্ষতিপূরণ যেটিকে পুলিশ প্রধান বহন করতে হবে আমরা মূলত তার বিরুদ্ধেই সংক্ষুব্ধ হয়েছি। ক্ষতিপূরণ দেয়া এবং দেয়ার পদ্ধতি পুরো বিষয়টি আমরা চ্যালেঞ্জ করেছি।মাহামান্য আপিল বিভাগ নির্ধারণ করবেন এই দায়ভার কার বা কার উপর বর্তায় বা আরমান কি ক্ষতিপূরণ পাবে কি পাবে না।

আরমানের আইনজীবী মো: হুমায়ুন কবীর পল্লব বলেন, সাংবিধানিক আদালত হিসেবে ক্ষতিপূরণ দিতে আইজিপিকে এই নির্দেশ দেয়ার এখতিয়ার রয়েছে উচ্চ আদালতের। 

তিনি বলেন, রাষ্ট্রপক্ষ থেকে বলা হয়েছে সাংবিধানিক আদালত আমাদের রিট জুডিকডিকশানে এই ধরণের ক্ষতিপূরণ দিতে পারেন না। তাদেরকে ক্ষতিপূরণ চাইতে হলে সিভিল মামলা করে পর্যাপ্ত ক্ষতিপূরণ দাবি করতে হবে। কোর্ট কিন্তু সুস্পষ্টভাবে বলেছেন আমরা যখন রিট জুডিকডিকশানে বসি তখন আমাদের সাংবিধানিকভাবে  এখতিয়ার রয়েছে রাষ্ট্রযন্ত্রের অবহেলার কারণে যদি কারো মৌলিক অধিকার লঙ্ঘিত হয়, তবে অবশ্যই সাংবিধানিক কোর্ট হিসেবে হাইকোর্ট তাকে এ ধরণের ক্ষতিপূরণ দিতে পারবে।

আদালতের নির্দেশমতো ভোগান্তি ছাড়াই দ্রুত ক্ষতিপূরণের টাকা পেতে চান আরমান।

ডেস্ক
ডিবিসি নিউজ
প্রকাশিতঃ ২৩শে জানুয়ারী, ২০২১
আপডেটঃ বৃহঃস্পতিবার, ২৫শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ সন্ধ্যা ০৭:৫৪


সর্বশেষ

আরও পড়ুন