• মঙ্গলবার, ০২ জুন ২০২০
  • দুপুর ৩:২০

ব্রিটিশ তৈরি পোশাক ক্রেতা প্রতিষ্ঠানকে কালো তালিকাভুক্তির হুমকি

ব্রিটিশ তৈরি পোশাক ক্রেতা প্রতিষ্ঠানকে কালো তালিকাভুক্তির হুমকি
রপ্তানি হওয়া তৈরি পোশাকের বকেয়া পাওনা পরিশোধ না করলে ব্রিটিশ প্রতিষ্ঠানকে কালো তালিকাভুক্তির হুমকি।

রপ্তানি হওয়া তৈরি পোশাকের বকেয়া পাওনা পরিশোধ না করলে যুক্তরাজ্যের এডিনবার্গ উলেন মিলস (ইডব্লিউএম) গ্রুপকে কালো তালিকাভুক্ত করা হবে। এমনটি জানিয়েছে বিজিএমইএ ও বিকেএমইএ।

বিজিএমইএ'র পক্ষ থেকে ইডব্লিউএমকে দেয়া এক চিঠিতে বলা হয়, ২৫শে মার্চ পর্যন্ত ইডব্লিউএম ও এর সহযোগী প্রতিষ্ঠানের ক্রয় আদেশের বিপরীতে যেসব পণ্য পাঠানো হয়েছে তার অর্থ ২৯শে মে'র মধ্যে পরিশোধ করতে হবে। তাছাড়া, এরইমধ্যে যেসব ক্রয় আদেশ দেয়া হয়েছে, সেগুলোর বিষয়ে সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে আলোচনা করে ৫ই জুনের মধ্যে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে পৌঁছাতেও বলা হয়েছে।

সংগঠন দুটির নির্দেশনা অনুসরণ না করলে ইডব্লিউএম ও এর সহযোগী প্রতিষ্ঠানকে কালো তালিকাভুক্ত করা ছাড়া বিকল্প উপায় থাকবে না বলেও চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

বিষয়গুলো সুরাহা না হলে ইডব্লিউএমের কোনো নতুন ক্রয়াদেশের জন্য শুল্কমুক্ত কাঁচামাল আমদানির সনদ ইউটিলাইজেন ডিক্লারেশন বা ইউপি ইস্যু করবে না বিজিএমইএ ও বিকেএমইএ।

৭৩ বছরের পুরনো ইডব্লিউএম গ্রুপ প্রায় ৪শ'র বেশি বিক্রয় কেন্দ্রে পিকক, কান্ট্রি ক্যাজুয়াল, অস্টিন রেডসহ বিখ্যাত ব্যান্ডের পোশাক বাজারজাত করে। পাঁচ বছর আগেও ব্রিটিশ এ গ্রুপটির বার্ষিক বিক্রির পরিমাণ ছিল ৫৬ কোটি পাউন্ড। করোনাভাইরাসের কারণে সাম্প্রতিক সময়ে ইডব্লিউএম বাংলাদেশের রিভার সাইড সোয়েটার, স্কাইলাইন অ্যাপারলেস, সাউর্দান ডিজাইনারস লিমিটেডসহ কয়েকটি কারখানার ১১ লাখ ৯৫ হাজার পিস পোশাকের ক্রয়াদেশ বাতিল করেছে। ক্রয়াদেশ বাতিল হওয়া পোশাকের রপ্তানি মূল্য ৮২ লাখ ডলারের বেশি।

ডেস্ক
ডিবিসি নিউজ
প্রকাশিতঃ ২৩শে মে, ২০২০
আপডেটঃ সোমবার, ১লা জুন, ২০২০ দুপুর ০২:৩৬


সর্বশেষ

আরও পড়ুন