• বৃহস্পতিবার, ২৪ অক্টোবর ২০১৯
  • রাত ৩:০০

'শেখ হাসিনা কখনো দেশের স্বার্থ বিক্রি করে না'

'শেখ হাসিনা কখনো দেশের স্বার্থ বিক্রি করে না'
ভারতের সঙ্গে গ্যাস নিয়ে চুক্তি বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, দেশের স্বার্থ শেখ হাসিনা বিক্রি করে দেবে এটা কখনও হতে পারে না।

তিনি আরও বলেন, আমরা বিদেশ দেখে এলপিজি গ্যাস এনে প্রক্রিয়াজাত করে ভারতে রপ্তানি করবো। এটা প্রাকৃতিক গ্যাস নয়। অন্য পণ্য যেমন আমরা রপ্তানি করি ঠিক তেমন। এটা নিয়ে ভুল বোঝাবুঝির কিছু নেই।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিদেশ সফর থেকে ফিরে প্রতিবারই সংবাদ সম্মেলন করেন এবং সমসাময়িক রাজনীতির বিভিন্ন বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তর দেন।বুধবার গণভবনে সম্প্রতি ভারত ও যুক্তরাষ্ট্র সফর উপলক্ষ্যে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ সব কথা বলেন তিনি।

শেখ হাসিনা বলেন, আমরা ত্রিপুরায় যে গ্যাস দিচ্ছি সেটি এলপিজি। আমাদের দেশে যেমন সরবরাহ করছি সেটিই ত্রিপুরায় দিচ্ছি। যারা এর বিরোধিতায় সোচ্চার মানে বিএনপি ২০০১ সালের কথা মনে করিয়ে দিতে চাই। আমেরিকা গ্যাস বিক্রির জন্য বলেছিল, আমি বলেছিলাম দেশের চাহিদা মিটিয়ে আমরা তারপর বিক্রি করব। যে কারণে ২০০১ সালে আমরা ক্ষমতায় আসতে পারিনি। আর যারা গ্যাস বিক্রি করে দিচ্ছে বলেছে তারাই গ্যাস দেবে বলে মুচলেকা দিয়ে ক্ষমতায় এসেছিলেন।

তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশ বিপুল পরিমাণ প্রাকৃতিক গ্যাস আমদানি করে দেশের চাহিদা মিটিয়ে ভারতে রফতানি করছে। এক সময় হাতে গোনা দু-একটি কোম্পানি একচেটিয়া ব্যবসা করতো, বর্তমানে তা ওপেন করে দেয়ায় ২৬টি কোম্পানি প্রতিযোগিতামূলকভাবে ব্যবসা করছে। তাই ১০ থেকে ১২ কেজির সিলিন্ডার দেড় হাজার টাকায় বিক্রি করতো, সেখানে এখন ৯০০ টাকায় বিক্রি করছে।

এলপিজি গ্যাস বাংলাদেশের রফতানি আইটেমে নতুন যুক্ত হয়েছে বলে মন্তব্য করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ থেকে প্রাকৃতিক গ্যাস ভারতকে দেয়া হবে না আর ফেনী নদী থেকে সামান্য পানি দেয়া হচ্ছে ভারতকে। এ সময় তিস্তা চুক্তি শিগগিরই করা হবে বলে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি আশ্বস্ত করেছেন বলেও জানান তিনি।

সাংবাদিকদের ওয়েজবোর্ড নিয়েও কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। ওয়েজবোর্ড বাস্তবায়ন নিয়ে তথ্যমন্ত্রীকে কাজ করার নির্দেশ দেন। 

ডেস্ক
ডিবিসি নিউজ
প্রকাশিতঃ ৯ই অক্টোবর, ২০১৯
আপডেটঃ শনিবার, ১৯শে অক্টোবর, ২০১৯ রাত ০৮:৫৪


সর্বশেষ

আরও পড়ুন