• সোমবার, ১৬ মে ২০২২
  • রাত ১০:২৪

যৌনাঙ্গে দুর্গন্ধ; দূরে সরে যাচ্ছে সঙ্গী!

যৌনাঙ্গে দুর্গন্ধ; দূরে সরে যাচ্ছে সঙ্গী!
পরিচ্ছন্নতা যৌন স্বাস্থ্য ও যৌন মিলনের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়, যেটি সম্পর্কে অবগত নন অনেকেই।

সুখী দাম্পত্যের অন্যতম চাবিকাঠি সুখী যৌন জীবন। কিন্তু অনেক ক্ষেত্রেই দেখা যায় সচেতনতার অভাবে যৌন মিলনে আগ্রহ হারিয়ে ফেলেন সঙ্গী। বিশেষত পরিচ্ছন্নতা যৌন স্বাস্থ্য ও যৌন মিলনের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয় যেটি সম্পর্কে অবগত নন অনেকেই।

যৌনাঙ্গের দুর্গন্ধ স্বাভাবিক বিষয়, তা নিয়ে ভয় পাওয়ার কিছু নেই। কিন্তু দুর্গন্ধ যদি অতি তীব্র হয়ে দাঁড়ায় সঙ্গে জ্বালা ভাব বা লালচে কোনও অ্যালার্জির মতো দেখা যায় তাহলে চিন্তা করার বিষয় বটেই। সময় নষ্ট না করে সঙ্গে সঙ্গে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

ব্যাকটেরি ছাড়াও হরমোনের তারতম্য, ঋতুচক্র, ঋতুজরা, পরিচ্ছন্নতার অভাব, ঘাম জমে এই ধরণের গন্ধ হতে পারে।

১। অপরিচ্ছন্ন অন্তর্বাস
অন্তর্বাস নিয়মিত পরিচ্ছন্ন না রাখলে যৌনাঙ্গে নানা ধরনের সংক্রমণ দেখা যায়। ডেকে আনে ঘাম, ময়লা, ক্ষত ও দুর্গন্ধের সমস্যা।

২। যৌনাঙ্গের অপরিচ্ছন্নতা
অন্তর্বাসের পর যে কথাটি অবশ্যই উঠে আসবে সেটি হল যৌনাঙ্গের পরিচ্ছন্নতা। তবে এটি একটি নিয়মিত অভ্যাস। কেবল যৌন মিলনের আগে ও পরে যৌনাঙ্গ সাফ করলেই এই পরিচ্ছন্নতা প্রকাশ পায় না। শুধু যৌন মিলনই নয়, যৌন স্বাস্থ্য ভাল রাখতেও নিয়মিত যৌনাঙ্গ সাফ করা অত্যন্ত প্রয়োজনীয়। এতে দূরে থাকে যৌন রোগও।

৩। মুখের অপরিচ্ছন্নতা
শুধু যৌনাঙ্গই নয়, মুখের অপরিচ্ছন্নতাও সঙ্গীকে ঠেলে দিয়ে পারে দূরে। যৌনতার প্রাথমিক সূচনা অনেক ক্ষেত্রেই হয় চুম্বনের মধ্য দিয়ে। আর তখনই যদি সঙ্গীর মুখে দুর্গন্ধ অনুভূত হয়, তবে তার থেকে খারাপ অভিজ্ঞতা খুব কমই হতে পারে।

কী করবেন?
-প্রথমেই যা করতে হবে তা হলো পরিষ্কার পরিচ্ছনতা রক্ষা করা। নিজের গোপন অঙ্গের যত্ন খুব ভালোভাবে নিন। সর্বদা পরিষ্কার থাকুন। ভালো অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল সাবান ব্যবহার করুন।
-বাজারে গোপন অঙ্গ পরিষ্কার করার জন্য ভালো কোম্পানির বিশেষ ধরণের সাবান ও বডি ওয়াশ কিনতে পাওয়া যায়, সেগুলো ব্যবহার করুন।
-গোপন অঙ্গে পাউডার ব্যবহার করতে হলে অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল ও সুগন্ধী পাউডার ব্যবহার করুন। তবে দীর্ঘসময় একই স্থানে পাউডার দিয়ে রাখবেন না।
-নিজের প্যানটি পরার আগে পারফিউম ছিটিয়ে নিন।
-বেশী টাইট পরবেন না পোশাক। গোপন অঙ্গে দুর্গন্ধ হলে ঢিলেঢালা পোশাক পরাই সবচাইতে ভালো।
-ভালো করে খেয়াল করুন। চুইয়ে চুইয়ে প্রশ্রাব এসে কি প্যানটি ভিজে যায়? এমন সমস্যা অনেক নারীরই থাকে। যদি তা হয় তো অবিলম্বে ডাক্তারের কাছে যান।
-ভালো কোম্পানির স্যানিটারি ন্যাপকিন ব্যবহার করুন। পিরিয়ডের সময় বাড়তি পরিছন্ন থাকুন।
-গোপন অঙ্গ পরিষ্কার করতে উষ্ণ পানি ব্যবহার করুন। যতবার টয়লেট ব্যবহার করবেন, প্রতিবার ভালো করে সাবান দিয়ে পরিছন্ন হোন।
এসবের পরেও যদি গোপন গঙ্গের গন্ধ দূর করতে না পারেন, অবশ্যই ডাক্তারের কাছে যান। এটা হতে পারে অন্য কোন শারীরিক সমস্যার ইঙ্গিত! লজ্জায় নিজের শরীরকে অবহেলা করবেন না। দেশে অনেক ভালো ভালো গাইনি ডাক্তার আছেন। অবশ্যই তাদের পরামর্শ নিন।

দই

দইয়ে অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল উপাদান রয়েছে। তাই চান করার আগে ভাল করে দই লাগিয়ে জায়গাটা পরিষ্কার করুন। এছাড়াও ট্যাম্পওনে দই লাগিয়ে যোনিতে তা ঢোকান। ২-৩ ঘন্টা রেখে বের করে নিন। তারপর ঈষদউষ্ণ জলে জায়গাটি ভাল করে পরিষ্কার করুন।

টি ট্রি অয়েল

এক কাপ জলে কয়েক ফোঁটা টি ট্রি অয়েল দিয়ে ভাল করে মিশিয়ে নিন। চানের সময় এই মিশ্রণ দিয়ে ভাল করে গোপনাঙ্গ পরিষ্কার করুন। গুর্গন্ধর থেকে মুক্তি পাবেন।

অ্যাপেল সিডার ভিনিগার

১ গ্লাস ঈষদুষ্ণ জলে ২ টেবিলচামচ অ্যাপেল সিডার ভিনিগার মেশান। প্রত্যেক দিন এই মিশ্রণ পান করুন। এর ফলে শরীর থেকে বর্জ্য পদার্থ বেরিয়ে যাবে এবং শরীরের ব্যাকটেরিয়া নষ্ট হবে।


ডেস্ক
Faruque
ডিবিসি নিউজ
প্রকাশিতঃ ২৭শে জানুয়ারী, ২০২২


সর্বশেষ

আরও পড়ুন