• মঙ্গলবার, ১১ মে ২০২১
  • রাত ১১:১১

'সবাই মিলেই গণমাধ্যমের সংকট দূর করতে হবে'

'সবাই মিলেই গণমাধ্যমের সংকট দূর করতে হবে'
গণমাধ্যমকে শুধু নেতিবাচক সংবাদ প্রচার-প্রকাশ না করে বাস্তবতা তুলে ধরতে হবে, বলে জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ।

সোমবার (৩ মে) দুপুরে, সচিবালয়ে নিজ দপ্তরে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন তিনি। এসময় তথ্যমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশে গণমাধ্যম যেমন স্বাধীন এবং মুক্তভাবে কাজ করছে, উন্নয়নশীল দেশগুলোর জন্য তা অবশ্যই একটি উদাহরণ এবং একইসাথে অনেক উন্নত দেশের তুলনায়ও এদেশের গণমাধ্যম মুক্ত এবং স্বাধীন। তারপরও যতটুকু সংকট আছে সবাইকে নিয়েই তা দূর করতে হবে।

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশে কোনো পত্রিকায় যদি ভুল সংবাদ পরিবেশিত হয়, তার প্রতিবাদ জানালে সংবাদটা যে মাত্রায় পরিবেশিত হয়েছিলো প্রতিবাদটা সেই মাত্রায় ছাপানো হয় না। এদেশে ভুল, অসত্য সংবাদ পরিবেশনের জন্য পত্রপত্রিকার কোনো জরিমানা গুণতে হয় না, যেটি উন্নত দেশে গুণতে হয়। উন্নত দেশগুলোতে কোনো ভুল, সংবাদ অসত্য সংবাদ বা কারো ব্যক্তিগত স্বাধীনতা, হস্তক্ষেপ হয়েছে এমন সংবাদ পরিবেশিত হলে কেউ যখন আইনের আশ্রয় নেন, তাদেরকে জরিমানা গুণতে হয়। এটি বিচ্ছিন্ন কোনো ঘটনা না, নিয়মিতই সেটি হয়। তথ্য কমিশন ও মন্ত্রণালয়ে কোনো খোঁজ না নিয়ে নানারকম বিবৃতি দেয়া থেকে বিরত থাকার অনুরোধ জানান তিনি।

হাসান মাহমুদ আরো জানান, বাংলাদেশের মানুষের গণমাধ্যমের ওপর যথেষ্ট আস্থা আছে। এই আস্থা না থাকলে এতগুলো টেলিভিশন চলতো না, পত্রিকাও বের হতো না, আর পাঠক সংখ্যা এতো বাড়তো না। সাম্প্রতিক সময়ে কিছু কিছু ঘটনা গণমাধ্যম যেভাবে আসার কথা ছিলো, সেভাবে আসেনি বিধায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচণ্ড সমালোচনা হচ্ছে। প্রায়শই যেটি বলা হয়, সরকারের চাপে অনেক সময় সংবাদ পরিবেশন করতে পারে না, কেউ কেউ যে অভিযোগ করে। এক্ষেত্রে তো তা ছিলো না। তারপরও কেন করা হলো না? যিনি যত বড় শক্তিশালী হোক না কেন, অর্থবিত্তে, প্রতিপত্তিতে, ক্ষমতায়, যদি কোনো সত্য সংবাদ হয়, সেটি অবশ্যই পরিবেশিত হওয়া প্রয়োজন৷ যার বিরুদ্ধেই হোক।

ডেস্ক
ডিবিসি নিউজ
প্রকাশিতঃ ৩রা মে, ২০২১


সর্বশেষ

আরও পড়ুন