• মঙ্গলবার, ০৭ এপ্রিল ২০২০
  • রাত ১১:০৫

স্বামীকে তালাক দিয়েছেন নায়িকা শাবনূর

স্বামীকে তালাক দিয়েছেন নায়িকা শাবনূর
স্বামীকে তালাক দিয়েছেন ঢাকাই চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় নায়িকা শাবনূর।

গেল ২৬শে জানুয়ারি স্বামী অনিককে তালাক দিয়েছেন বাংলা চলচ্চিত্রের এক সময়কার জনপ্রিয় নায়িক শারমীন নাহিদ নুপূর ওরফে শাবনূর। নিজের স্বাক্ষর করা নোটিশটি অ্যাডভোকেট কাওসার আহমেদের মাধ্যমে স্বামী অনিককে তালাকের নোটিশ পাঠান শাবনূর। নোটিশে অনিকে সঙ্গে বনিবনা না হওয়ার কথা উল্লেখ করেছেন শাবনূর।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন তালাকের নোটিশ এবং হলফনামা প্রস্তুতকারী অ্যাডভোকেটঙ্কাওসার আহমেদ। তিনি জানান, গেল ২৬শে জানুয়ারি অনিকের সঙ্গে বৈবাহিক সম্পর্ক ছিন্ন করেছেন শাবনূর। গত ৪ঠা ফেব্রুয়ারি অনিকের উত্তরা এবং গাজীপুরের বাসার ঠিকানায় নোটিশটি পাঠানো হয়। উত্তরার নোটিশটি ফেরত এলেও গাজীপুরের ঠিকানায় যে নোটিশটি পাঠানো হয়েছে সেটি ফেরত আসেনি। অনিক নোটিশটি গ্রহণ করলে এর মধ্যেই ফেরত আসত। তবে, আইনগতভাবে ৯০ দিনের মধ্যে তাদের তালাক কার্যকর হবে।

জানা গেছে, ২০১১ সালের ৬ই ডিসেম্বর অনিক মাহমুদ হৃদয়ের সঙ্গে আংটি বদল করেন শাবনূর। এরপর ২০১২ সালের ২৮শে ডিসেম্বর বিয়ে করেন তারা। ২০১৩ সালের ২৯শে ডিসেম্বর আইজান নিহান নামে এক পুত্রসন্তানের মা হন শাবনূর। পুত্রকে নিয়ে তিনি এখন অস্ট্রেলিয়ায় বসবাস করছেন।

তালাক নোটিশে শাবনূর বলেছেন, ‘আমার স্বামী অনিক মাহমুদ হৃদয় সন্তান এবং আমার যথাযথ যত্ন ও রক্ষণাবেক্ষণ করেন না। সে মাদকাসক্ত। অনেকবার মধ্যরাতে মদ্যপ অবস্থায় বাসায় এসে আমার ওপর শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন চালিয়েছে। আমাদের ছেলের জন্মের পর থেকে সে আমার কাছ থেকে দূরে সরে থাকছে এবং অন্য একটি মেয়ের সঙ্গে সম্পর্ক গড়ে আলাদা বসবাস করছে। একজন মুসলিম স্ত্রীর সঙ্গে তাঁর স্বামী যে ব্যবহার করেন অনিক সেটা করছেন না, উল্টো নানাভাবে আমাকে নির্যাতন করে। এসব কারণে আমার জীবনে অশান্তি নেমে এসেছে। চেষ্টা করেও এসব থেকে তাকে ফেরাতে পারিনি। বরং আমার সন্তান এবং আমার ওপর নির্যাতন আরো বাড়তে থাকে। উপরোক্ত কারণগুলোর জন্য মনে হয়ে তার সঙ্গে আমার আর বসবাস করা সম্ভব নয় এবং আমি কখনো সুখী হতে পারব না। তাই নিজের উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ এবং সুন্দর জীবনের জন্য তার সঙ্গে সব সম্পর্ক ছেদ করতে চাই। মুসলিম আইন এবং শরিয়ত মোতাবেক আমি তাকে তালাক দিতে চাই। আজ থেকে সে আমার বৈধ স্বামী নয়, আমিও তার বৈধ স্ত্রী নই।’

ডেস্ক
ডিবিসি নিউজ
প্রকাশিতঃ ৪ঠা মার্চ, ২০২০
আপডেটঃ মঙ্গলবার, ৭ই এপ্রিল, ২০২০ রাত ১০:৫১


সর্বশেষ

আরও পড়ুন