• সোমবার, ১৬ মে ২০২২
  • রাত ৯:০৬

স্বাস্থ্যবিধি মানাতে খোদ রাজধানীতেই নেই প্রশাসনের তৎপরতা

করোনায় সংক্রমণের হার ৩০ শতাংশের ওপরে রয়েছে চারদিন ধরে। এ নিয়ে উদ্বিগ্ন স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। আগেই জারি করা হয়েছে ১১ দফা বিধিনিষেধ। কিন্তু তা মানাতে প্রশাসনের পক্ষ থেকে মাঠ পর্যায়ে কোনও তৎপরতা নেই।

বাজার, শপিংমল, গণপরিবহণ বা রাজপথ। রাজধানীর বর্তমান চিত্র দেখে বোঝার উপায় নেই দেশে আবারও বেড়ে চলেছে করোনায় সংক্রমণ। স্বাস্থ্যঝুঁকি থাকলেও উদাসীন সবাই। সাধারণ মানুষ কোনভাবেই মানছেন না স্বাস্থ্যবিধি।

কারওয়ান বাজারে এক ক্রেতা বলেন, আমাদের সচেতন থাকতে হবে। নিজেকে বাঁচতে হবে আরেকজনকে বাঁচাতে হবে। সচেতন না হলে আক্রান্তের হার আরও বেড়ে যাবে।

এক কিশোর বলেন, অনেকেই মানছেনা, আবার অনেকেই মাস্ক পরেন। আমরাও পরি। তবে পরতে পরতে দম বন্ধ হয়ে আসলে আবার খুলে রেখে দেই।

সংক্রমণের হার ৩২ শতাংশ ছাড়িয়েছে। তবু কোথাও কেউ মানছেন না স্বাস্থ্যবিধি। তার উপর নিয়ম না মানার কারণ হিসেবে দিচ্ছেন অর্থহীন যুক্তি।

এক বিক্রেতা বলেন, এটা হলো মনের ব্যাপার। আল্লাহ থাকতে করোনা কিসের? কোন করোনা নাই।

এক মুরগি বিক্রেতা বলেন, আগে খাদ্যের যোগান দিক তারপর করোনার চিন্তা করবো। পেটে ভাত নেই আমি করোনা দিয়ে কি করবো?

একজন সবজি বিক্রেতা বলেন, কারওয়ান বাজারের কেউই ঠিকমত মাস্ক ব্যবহার করেন না। তবে এখানে কাউকে করোনায় আক্রমণ করেছে বলে শুনিনি।

ব্যবস্থা নেয়ার দায়িত্ব যাদের সেই প্রশাসনের পক্ষ থেকেও ছিলো না কোনও উদ্যোগ। স্বাস্থ্যবিধি মানাতে ভ্রাম্যমাণ আদালত থাকার কথা থাকলেও তা চোখে পড়ছেনা রাজধানীর কোনও সড়কে।

উল্লেখ্য, ওমিক্রনের প্রভাবে দেশে প্রতিদিনই লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে সংক্রমণের হার। করোনায় দেশে এখন পর্যন্ত ১৭ লাখ ৩১ হাজার ৫২৪ জন করোনায় আক্রান্ত হয়ে শনাক্ত হয়েছেন। আর মোট মৃতের সংখ্যা ২৮ হাজার ২৭৩ জনে দাঁড়িয়েছে।

ডেস্ক
ডিবিসি নিউজ
প্রকাশিতঃ ২৭শে জানুয়ারী, ২০২২


সর্বশেষ

ঘটনাপ্রবাহ বিশ্লেষণঃ

আরও পড়ুন