• মঙ্গলবার, ১১ মে ২০২১
  • রাত ১১:০২

হেফাজতি তাণ্ডবে পুড়েছে ওস্তাদ আলাউদ্দিন খাঁ সঙ্গীতাঙ্গন

হেফাজতি তাণ্ডবে পুড়েছে ওস্তাদ আলাউদ্দিন খাঁ সঙ্গীতাঙ্গন
আবারও পুড়েছে শুদ্ধ সংগীত চর্চাকেন্দ্র সুরসম্রাট ওস্তাদ আলাউদ্দিন খাঁ সঙ্গীতাঙ্গন।

গত রবিবার হেফাজতে ইসলামের তাণ্ডবে ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের পুরাতন জেল রোডের প্রতিষ্ঠানটিতে থাকা দুর্লভ নথিপত্রসহ ওস্তাদ আলাউদ্দিন খাঁর স্মৃতিবিজড়িত সব বাদ্যযন্ত্র পুড়ে গেছে।

২৮শে মার্চ ব্রাহ্মণাবড়িয়া শহরে তাণ্ডব চালায় হেয়াজতে ইসলাম। সেই তাণ্ডবে ধ্বংসযজ্ঞে পরিণত হয়েছে শহরের পুরাতন জেল রোডের শুদ্ধ সংগীত চর্চাকেন্দ্র সুরসম্রাট ওস্তাদ আলাউদ্দিন খাঁ সঙ্গীতাঙ্গনটি।

এ সময় প্রতিষ্ঠানটিতে থাকা দুর্লভ আড়াইশ' বই, আড়াই হাজার ছবি, দলিলপত্র, আলাউদ্দিন খাঁর লেখা সঙ্গীতের পান্ডুলিপি, গানের বিভিন্ন সরঞ্জাম নষ্ট হয়েছে।এর মধ্যে ১২টি হারমোনিয়াম, সেতার, তবলা, বেহালা, খুঞ্জন ও বিখ্যাত বাদ্যযন্ত্র সরোদ ছিল। যা এক বারেই পুড়ে ছাই হয়ে গেছে।

সুরের শহরে এবার কাঁদছে সরোদ। সুর সম্রাট ওস্তাদ আলাউদ্দিন খাঁ'র হাতের স্পর্শ পাওয়া সরোদটি আবারও ক্ষত-বিক্ষত হয়েছে। সরোদের সঙ্গে তাল মিলিয়ে কাঁদছে জাদুঘরটিও। দগ্ধ হয়ে ভয়াবহ স্মৃতি নিয়ে দাঁড়িয়ে আছে এখন এই সঙ্গীত প্রতিষ্ঠানটি।

স্থানীয়রা আক্ষেপ প্রকাশ করে বলেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া আর সংস্কৃতির রাজধানী নেই, এই শহর এখন মৌলবাদীদের ঘাঁটিতে পরিণত হয়েছে। এবারের হামলায় সব কিছু ধ্বংস হয়ে গেছে। এমন নৃশংস ঘটনার সুষ্ঠু বিচার চান সবাই।

সুরসম্রাট দি আলাউদ্দিন সঙ্গীতাঙ্গনটির সাধারণ সম্পাদক মঞ্জুরুল আলম বলেন, 'সত্য ও সুন্দরের প্রতি যাদের আগ্রহ নেই তারা এই প্রতিষ্ঠানটি পুড়িয়ে দিয়েছে।

এদিকে, সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ জানান, কাউকে ছাড় দেয়া হবে না। সঙ্গীতাঙ্গনটি সংস্কার করার জন্য একটি প্রকৌশলী টিম সেখানে যাবেন বলেও জানান তিনি।

এর আগেও ২০১৬ সালের ১২ই জানুয়ারি প্রতিষ্ঠানটিকে জ্বালিয়ে দেয়া হয়েছিল।

ডেস্ক
ডিবিসি নিউজ
প্রকাশিতঃ ২রা এপ্রিল, ২০২১


সর্বশেষ

আরও পড়ুন